মেয়েদের নিয়ে ‘অশ্লীল শব্দ’ ব্যবহার, পুলিশি হেফাজতে হানি সিং

টিবিটি টিবিটি

বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:০১ অপরাহ্ণ, জুলাই ৯, ২০১৯ | আপডেট: ৯:০১:অপরাহ্ণ, জুলাই ৯, ২০১৯

গানের সংলাপের মধ্যে দিয়ে মহিলাদের অপমান করা হয়েছে। রয়েছে কুরুচিকর শব্দের ব্যবহার। এমন অভিযোগেই আটক করা হল বলিউডের জনপ্রিয় ব়্যাপার হানি সিংকে। একই অভিযোগে পাঞ্জাব পুলিশ আটক করেছে সংগীত প্রযোজক ভূষণ কুমারকেও।

ভারতীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা যায়, সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ‘মাখনা’ গানের জন্য অনুরাগীদের রোষের মুখে পড়েছিলেন এই পাঞ্জাবি ব়্যাপার। অভিযোগ, ‘ম্যায় হুঁ ওম্যানাইজার’, ‘সিলিকন ওয়ালি লড়কিয়োঁকো ম্যায় পটাতা হুঁ’র মতো বেশ কয়েকটি লাইন রয়েছে এই গানে। যা অত্যন্ত আপত্তিজনক। আর সেই কারণেই পাঞ্জাবের মহিলা কমিশনের তরফে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানানো হয়েছিল।

কমিশনের চেয়ারপার্সন মণীষা গুলাটি জানিয়েছিলেন, পাঞ্জাব পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেল, ইন্সপেক্টর জেনারেল ও অ্যাডিশনাল চিফ সেক্রেটারির কাছে এই নিয়ে অভিযোগ করেছেন তিনি। হানি সিং তাঁর গানে এমন কিছু কথা ও শব্দ ব্যবহার করেছেন, যা অত্যন্ত অপমানজনক।

এমন লিরিক্সের জন্য টি-সিরিজের ভূষণ কুমার, গায়ক হানি সিং ও গায়িকা নেহা কক্করের বিরুদ্ধে পুলিশি তদন্তের দাবিও তুলেছিলেন তিনি। পাশাপাশি সেন্সর বোর্ডের কাছেও অভিযোগ জানিয়েছিলেন মণীষা। পাঞ্জাবে গানটির উপর নিষেধাজ্ঞা জারির দাবি তুলে রাজ্য সরকারের দ্বারস্থ হন চেয়ারপার্সন। মোহালির মাতাউর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়। মোহালির সিনিয়র এসপি হরচরণ সিং ভুল্লার বলেন, ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৯৪ এবং ৫০৯ নম্বর ধারায় হানি সিংয়ের বিরুদ্ধে মামলা রুজু হয়েছে।

তবে এই প্রথম যে হানি সিং বিতর্কে জড়ালেন, তা নয়। এর আগে ২০১৩ সালেও একবার গানের লিরিক্স নিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন তিনি। ওই গানটিতে হানি সিং লিখেছিলেন, ‘ম্যায় হুঁ বলৎকারি’। এছাড়া ‘লাক ২৮’, ‘ব্লু আইজ’, ‘কিকলিকালেরেদ্রি’ ও ‘ব্লাউন রং’ গান নিয়েও বিতর্কে জড়িয়েছিলেন তিনি।