মোংলায় এক ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:১৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৪, ২০২১ | আপডেট: ৯:১৫:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৪, ২০২১

এনামুল হক, মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি: মোংলায় বিদেশী বাণিজ্যিক জাহাজে বাজার সরবরাহকারী (বাজার সাপ্লাইয়ার) ব্যবসায়ী আলামিন ফকির (৩৫) কে খুন করার উদ্দেশ্যে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। গুরুতর আহত ওই ব্যবসায়ী স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছেন। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে খুলনায় নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন স্থানীয় হাসপাতাল কতর্ৃপক্ষ।

এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর রবিবার এক দুর্বৃত্তকে আটক করে বাগেরহাট আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ ও থানায় দায়েরকৃত মামলার বিবরণে জানা যায়, পৌর শহরের রাতারাতি কলোনী এলাকার বাসিন্দা আব্দুর রশিদ ফকিরের ছেলে আলামিন ফকির মোংলা বন্দরে আগতে বিদেশী বাণিজ্যিকজাহাজে বাজার সরবরাহের ব্যবসা করে আসিছল। বিদেশী জাহাজে বাজার সরবরাহ ব্যবসায় আলামিন লাভবান হওয়ায় এবং আর্থিকভাবে স্বচ্ছলতা আসায় দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় একটি দুর্বৃত্ত দল তার কাছে চাঁদা দাবী করে আসছিল। চাঁদা দিতে রাজি না হওয়ায় শনিবার রাতে শহরের তাজমহল রোডস্থ অফিস থেকে বের হয়ে বাড়ী যাওয়ার পথিমধ্যে বাজার মসজিদের সামনে দুর্বৃত্তরা মটরসাইকেলে করে এসে তার গতিরোধ করে। এ সময় আলামিন কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই দুর্বৃত্তরা রামদা দিয়ে তার মাথায় দুইটি কোপ দেয় এবং কাঠের চলা দিয়ে বেদম মারপিট করে রক্তাক্ত জখম করে।

হামলাকারীরা মারধর ছাড়াসহ তার কাছে থাকা নগদ ১৫ হাজার ২শ টাকা ও ২৮ হাজার টাকা দামের একটি মোবাইল নিয়ে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পরে খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ আলামিনকে সেখান থেকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। হামলায় মাথা ছাড়া শরীরের পেটে, পিঠে ও পায়ে গুরুতর জখম হয়েছে আলামিনের। তার শারীরিক অবস্থা গুরুতর হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন স্থানীয় হাসপাতালের চিকিৎসকেরা। এদিকে এ ঘটনায় শনিবার রাতেই আলামিন বাদী হয়ে দুর্বৃত্ত মিঠু হাওলাদার (৩৩), ফোরকান হাওলাদার (৩২), হেলাল উদ্দিন (২৫) ও মো: সম্রাট হোসেন (৩০)সহ ২/৩ জন অজ্ঞাত নামা আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলার আসামী ফোরকান হাওলাদারকে আটক করেছে। মোংলা থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই মো: জাহাঙ্গীর আলম বলেন,খুন করার উদ্দেশ্যে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গুরুতর জখম ও ৪৩ হাজার ২শ টাকার মালামাল ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে। এ ঘটনায় ইতিমধ্যে একজনকে ধরে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতারেও পুলিশী তৎপরতা চলছে বলেও জানান তিনি।