ম্যাচ হারার কারণ হিসেবে যা বললেন রোহিত

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:৪৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৪, ২০১৯ | আপডেট: ৫:৪৭:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৪, ২০১৯

সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ভারতকে ৭ উইকেটে হারিয়ে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফর্ম্যাটে পাশা বদলালো টাইগাররা। গত আট ম্যাচের ট্রেন্ড বদলে টি-২০ ক্রিকেটে ভারতের বিরুদ্ধে নবম সাক্ষাতে প্রথম জয় তুলে নিল টাইগার্সরা।

তবে অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশকে ছুঁড়ে দেওয়া লক্ষ্যমাত্রা যথেষ্ট ‘ডিফেন্ডবল’ ছিল, কিন্তু ফিল্ডিংয়ে ঘাটতির কারণে ম্যাচ হারতে হয়েছে দলকে। ম্যাচ শেষে এমনটাই জানালেন স্ট্যান্ড-ইন অধিনায়ক রোহিত শর্মা।

তবে বাংলাদেশের এই জয়কে কোনওভাবেই খাটো করার পক্ষপাতী নন তিনি। সব বিভাগেই এদিন বাংলাদেশ ভারতকে টেক্কা দিয়েছে বলে মত রোহিতের। ভারতের স্ট্যান্ড-ইন অধিনায়কের কথায়, ‘বাংলাদেশের কৃতিত্বকে কোনওভাবেই খাটো করার নয়। ব্যাটিংয়ের শুরু থেকেই ওরা আমাদের চাপে রেখেছিল।’

পাশাপাশি নিজের দল নিয়ে বলতে গিয়ে ‘হিটম্যান’ জানান, ‘আমাদের স্কোরটা ডিফেন্ড করা উচিৎ ছিল। কিন্তু আমরা ফিল্ডিংয়ে অনেক ভুলচুক করেছি। দলের ছেলেরা একটু অনভিজ্ঞ। তবে তাঁরা এই ভুল থেকে শিক্ষা নিয়েই পরের ম্যাচে মাঠে নামবে।’

শুধু ফিল্ডিংয়ের ভুলই নয়, ডিআরএস নেওয়ার ক্ষেত্রেও এদিন বারদু’য়েক মারাত্মক ভুল করে বসে ভারতীয় দল। বাংলাদেশের ম্যাচ জয়ের নায়ক মুশফিকুরের একই ওভারে দুটি আউটের আবেদন ডিআরএস নেওয়ার ব্যাপারে ভুল করে বসে ‘মেন ইন ব্লু’। অন ফিল্ড আম্পায়ার আউটের সিদ্ধান্ত না দিলেও পরে দেখা যায় রিভিউ নিলে আউট হতেন মুশফিকুর। ম্যাচ শেষে সাংবাদিক সম্মেলনে ‘নিজেদের ভুল’ আখ্যা দিয়েও বিষয়টি নিয়ে বেশি কথা বাড়াতে চাননি ‘হিটম্যান’।

তবে হারের মাঝেও যুবেন্দ্র চাহালের ফর্মে বেশ অনেকটাই আশ্বস্ত রোহিত। অগাস্টের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথম ম্যাচ খেলতে নামা লেগ-স্পিনারকে নিয়ে বলতে গিয়ে দলনায়ক জানান, ‘টি-২০ ফর্ম্যাটে চাহালকে সবসময় স্বাগত। চাহালের দলের অন্যতম মূল অস্ত্র। মিডল অর্ডারে ওর ভূমিকা যে কতটা গুরুত্বপূর্ণ সেটা ও আজ দেখিয়ে দিয়েছে। ক্রিজে থিতু হয়ে যাওয়া ব্যাটসম্যানদের বিরুদ্ধে কীভাবে বল করতে হবে সেটা চাহাল ভালোমতোই জানে। যা অধিনায়কের কাজ অনেকটা সহজ করে দেয়।’

প্রথমে ব্যাটিং করে রবিবার নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৪৮ রান তোলে ভারত। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১৯.৩ ওভারে ৩ উইকেটের বিনিময়ে ১৫৪ রান তুলে ইতিহাস গড়ে টাইগাররা। ৮টি চার ও ১টি ছয়ের সাহায্যে ৪৩ বলে ৬০ রানে অপরাজিত থাকেন রহিম। আগামী ৭ নভেম্বর রাজকোটে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হবে দু’দল।