ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়ি লক্ষ্য করে ককটেল নিক্ষেপ করেছে দুর্বৃত্তরা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:১৬ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০২০ | আপডেট: ৮:১৬:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০২০

দক্ষিণ চট্টগ্রামের লোহাগাড়া সদর ও আমিরাদ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে পৃথক ঘটনায় দুজন ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়ি লক্ষ্য করে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে সদর ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের নজিবুন্নেসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র ও আমিরাবাদ ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর আমিরাবাদ বিদ্যালয়ের ভোটকেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, কেন্দ্র দখল করে জাল ভোট দেওয়ার খবর পেয়ে নজিবুন্নেসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিলুফা ইয়াসমিন চৌধুরী। ওই ভোটকেন্দ্রে স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহাবুদ্দিন ও আওয়ামী লীগের প্রার্থী নুরুসসাফার অনুসারীরা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে।

এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিলুফা ইয়াসমিন চৌধুরীর গাড়ি লক্ষ্য করে পরপর দুটি ককটেল নিক্ষেপ করে দুর্বৃত্তরা। এতে গাড়িচালক মো. শাহেদ (৩০) গুরুতর আহত হন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিলুফা ইয়াসমিন চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘নজিবুন্নেসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে অনিয়মের খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে যাই। এ সময় আমার গাড়ি লক্ষ্য করে পরপর দুটি ককটেল নিক্ষেপ করে দুর্বৃত্তরা। হামলায় আমি অক্ষত থাকলেও চালক গুরুতর আহত হয়েছেন। ঘটনার পর পরই পুলিশ দুর্বৃত্তদের ধরতে অভিযান শুরু করেছে।’

এদিকে আমিরাবাদ ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর আমিরাবাদ বিদ্যালয়ের ভোটকেন্দ্র পরিদর্শনে গেলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইনামুল হাসানের গাড়ি লক্ষ্য করেও ককটেল হামলা চালানো হয়। তবে এতে কেউ হতাহত হননি।

এ ছাড়া লোহাগাড়া উপজেলার আমিরাবাদ ১ নম্বর ওয়ার্ডের আমিরাবাদ সুফিয়া আলিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকরা সংঘর্ষে জড়ালে দুজন আহত হন। এ সময় ভোটগ্রহণ সাময়িক স্থগিত করা হলেও পরে ভোট স্বাভাবিক হয়।