যশোরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ১৫, আশঙ্কাজনক অবস্থায় ২ জন

শহিদ জয় শহিদ জয়

যশোর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৫:৪২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯ | আপডেট: ৫:৪২:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯
ফাইল ছবি

পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় কমবেশি ১৫জন আহত হয়েছে। যশোর জেনারেল হাসপাতালের ৮জন ভর্তি হলেও দুইজনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাদেরকে ঢাকায় রেফার করা হয়েছে। রবিবার যশোর খুলনা ও যশোর ঝিনাইদহ সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

হাসপাতালের চিকিৎসাধীনরা হলেন, গোপালগঞ্জ টুঙ্গিপাড়ার রফিকুল ইসলাম (৫০), যশোর সদর উপজেলার বসুন্দিয়ার মাহমুদপুর গ্রামের মোস্তাক (২৮), কচুয়া গ্রামের সোহান (২০), খুলনার খালিশপুরের এনজিওকর্মী চুমকি (৩৫) বসুন্দিয়ার লাভলী (২৫), ঝিনাইদহের ফুলবাড়ির সেলিম (৩৫), কালীগঞ্জের রাকিব হোসেন ও কামারগন্নি গ্রামের সোহাগ (২৫)

আহতরা জানান, যশোর খুলনা মহাসড়কের জামতলা নামক স্থানে খুলনাগামী গড়াই পরিবরের একটি গাড়ি রবিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে প্রথমে নসিমনকে চাপা দেয়। পরে আফিল কোম্পানির ইটের গাড়িতে চাপা দেয়।

এসময় ইটের গাড়ির ড্রাইভার মোস্তাক এবং গাড়ির যাত্রী সোহান, নসিমনের চালক রফিক এবং গড়াই পরিবহনের যাত্রী এনজিওকর্মী চুমকি ও লাভলীসহ ১০জন আহত হয়। স্থানীয়রা মোস্তাক, সোহান, রফিক, চুমকি ও লাভলীকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে। আহত চুমকির বাম পা ভেঙ্গে টুকরো টুকরো হয়েছে বলে তার স্বজনরা দাবি করেছে। বাকীদের স্থানীয় ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগের ডাক্তার সফিউল্লাহ সবুজ, মেডিকেল অফিসার রব চুমকিকে ঢাকায় রেফার করেন। গড়াই ও আফিল ব্রিকের গাড়ির সাথে দুর্ঘটনায় ওই সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পুলিশ এক ঘন্টার পর যান চলাচল স্বাভাবিক করে দেয়।

অপরদিকে রবিবার দুপুর ১২টার দিকে যশোর ঝিনাইদহ সড়কের বারোবাজারে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা লোকজনকে চাপা দেয় ঝিনাইদহগামী একটি পিকআপ। এতে সোহাগ. রাকিব, সোহাগ গুরুতর আহত হয়। স্থানীয়রা তাদেরকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে।

আহতদের মধ্যে সেলিমের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় ডাক্তার তাকে ঢাকায় রেফার করেন। অন্য দুইজনের শংকামুক্ত নয় বলে জানিয়েছেন জরুরী বিভাগের ডাক্তার সফিউল্লাহ সবুজ।