যুবলীগের দায়িত্ব চান জবি ভিসি

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: 7:08 PM, October 18, 2019 | আপডেট: 7:08:PM, October 18, 2019
অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান। ফাইল ছবি

যুবলীগের দায়িত্ব নিতে নিজের আগ্রহের কথা জানিয়েছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান। এ জন্য তিনি ভিসির পদ ছাড়তেও রাজি আছেন। অধ্যাপক মীজানুর রহমান যুবলীগের বর্তমান কমিটির প্রথম প্রেসিডিয়াম সদস্য। তবে তিনি জানিয়েছেন, ভিসি হওয়ার পর তিনি যুবলীগের কোনো বৈঠকে যাননি।

একটি বেসরকারি টেলিভিশনের টক শোতে এসব কথা বলেন ভিসি ড. মীজানুর রহমান। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১১টায় ওই টক শোটি প্রচারিত হয়। আজ শুক্রবার দুপুর পৌনে ১টায় নিজের ফেসবুক পেজে ওই টক শোর ভিডিওটি শেয়ার দেন তিনি।

ওই টক শোতে যুবলীগ প্রসঙ্গটি আলোচনায় আসে। এ বিষয়ে ভিসি ড. মীজানুর রহমান বলেন, ‘আমাকে যদি বলা হয়, আপনি যুবলীগের দায়িত্ব নিতে পারবেন কি না? তবে আমি সঙ্গে সঙ্গে উপাচার্য বা চাকরি ছেড়ে দেব এবং যুবলীগের দায়িত্ব নেব।’

ভিসি আরও বলেন, ‘আমি উপাচার্য হওয়ার পর আর কোনো (যুবলীগের ) মিটিংয়ে যাই না। তবে যদি আমাকে এখনো বলা হয় যুবলীগের দায়িত্ব নিতে হবে, আমি ভাইস চ্যান্সেলরের পদ ছেড়েই দায়িত্ব নেব। আমাকে যদি বলা হয়, আপনি যুবলীগের দায়িত্ব নিতে পারবেন কি না? তবে আমি সঙ্গে সঙ্গে উপাচার্য বা চাকরি ছেড়ে দিয়ে (যুবলীগের) দায়িত্ব নেব। কারণ, এটা এত ভালোবাসার একটি সংগঠন, আমি উপাচার্যশিপ ছেড়ে দিতে রাজি আছি।’

সম্প্রতি যুবলীগের বিভিন্ন নেতার বিরুদ্ধে দুর্নীতি, অবৈধ ক্যাসিনো ব্যবসা ও টেন্ডারবাজির অভিযোগ ওঠে। আর এ নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অভিযানও চালায়। যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটসহ একাধিক নেতা গ্রেফতার হন। এর পর থেকে সংগঠন‌টির চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীর নামও উঠে আসে। এ ছাড়া ওমর ফারুক চৌধুরীর বিদেশ যেতে বাধা ও ব্যাংক হিসাব তলব করা হয়।

অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান ১৯৫৮ খ্রিষ্টাব্দে কুমিল্লার এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৭৩ খ্রিষ্টাব্দে বিবির বাজার উচ্চবিদ্যালয় থেকে এসএসসি এবং কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি মহাবিদ্যালয় থেকে ১৯৭৫ খ্রিষ্টাব্দে এইচএসসি পাস করে ১৯৭৬ খ্রিষ্টাব্দে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মার্কেটিং বিভাগে ভর্তি হন। একই বিভাগ থেকে স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি উপমহাদেশের ঐতিহ্যবাহী আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৯৪ খ্রিষ্টাব্দে ‘ব্যবসায় প্রশাসনে’ পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। ছাত্রজীবনে সকল পরীক্ষায় কৃতিত্বের অধিকারী ড. মীজানুর রহমান সরকারি উচ্চপদের চাকরি ছেড়ে ১৯৮২ খ্রিষ্টাব্দে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের লেকচারার হিসেবে শিক্ষকতার পেশায় যোগ দেন। ১৯৮৬ খ্রিষ্টাব্দে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগদান করেন। ১৯৯৯ খ্রিষ্টাব্দে তিনি মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক পদে নিযুক্ত হন। ২০১৩ খ্রিষ্টাব্দের ২০ মার্চ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি হিসেবে যোগ দেন। এর আগে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ পদে ছিলেন।