যেভাবে শীর্ষে উঠলেন অ্যান্ডারসন

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:১৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮ | আপডেট: ১০:১৫:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮

বাঁক খাওয়া বল। অথবা লেট সুইং। ব্যাটের কানা নিয়ে চোখের পলকে ক্যাচ। জেমস অ্যান্ডারসন মানেই এমন দৃশ্যের সমাহার। ২০ বছর বয়সে অভিষেকের পর ৩৬ বছর বয়সে এসে টেস্টে পেসারদের মধ্যে সর্বাধিক উইকেট শিকারি হয়েছেন। তার ক্যারিয়ারের চমকপ্রদ সব পরিসংখ্যান নিয়ে এই আয়োজন।

শুরুতে যেমন ছিলেন
জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অভিষেক টেস্টে প্রথম ওভারে ১৭ রান দেন। কিন্তু তৃতীয় ওভারে এসে মার্ক ভার্মেলনকে ফিরিয়ে দলকে স্বস্তি এনে দেন। ইনিংসে ৭৩ রান দিয়ে ৫ উইকেট নেন।

শুরুর সেই দিনগুলোতে অ্যান্ডারসনের বলে এতটা ধার ছিল না। বেশ রান বেরিয়ে যেত ওভারগুলো থেকে। প্রচুর হাফভলি করতে দেখা যেত। কিন্তু ধীরে ধীরে সুইংয়ে দক্ষতা বাড়িয়ে এই সমস্যা কাটিয়ে ওঠেন।

বেশি বার আউট করা ব্যাটসম্যান
অ্যান্ডারসনের উইকেট এখন ৫৬৪টি। এর মধ্যে তিনি ১১ বার আউট করেছেন সাবেক অস্ট্রেলিয়ান বোলার পিটার সিডলকে। কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকারকে ১৪ ম্যাচে আউট করেছেন ৯ বার। চারটি অ্যাশেজ সিরিজ জয়ে তার অবদান অনেকখানি। অস্ট্রেলিয়ার ওয়ার্নার এবং ক্লার্ককে আউট করেছেন ৯ বার করে। ওয়াটসনকে ফিরিয়েছেন ৮ বার।

উইকেটের ধরণ
এক তৃতীয়াংশ উইকেট নিয়েছেন ফিল্ডারদের ক্যাচ থেকে। তারপর তার বলে বেশি ক্যাচ নিয়েছেন উইকেটরক্ষক। এরপর বোল্ড, এরপর এলবিডব্লিউ।

অ্যালিস্টার কুক অ্যান্ডারসনের বলে বেশি প্রথম স্লিপে দাঁড়িয়েছেন। উইকেটরক্ষকের পর তিনিই বেশি ক্যাচ ধরেছেন, ৪০টি।

প্রিয় প্রতিপক্ষ
ভারতীয়দের পেলেই জ্বলে ওঠেন অ্যান্ডারসন। অন্য যেকোনো দলের চেয়ে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের তিনি বেশিবার আউট করেছেন। ২৭ ম্যাচে তার উইকেট ১১০টি।

ঘরের মাঠে অপ্রতিরোধ্য
অধিকাংশ বোলারদের মতো ঘরের মাঠে অ্যান্ডারসনকে খেলা কঠিন। ৫৬৪ উইকেটের মধ্যে ৩৬৮টি উইকেট নিয়েছেন ইংল্যান্ডের মাটিতে।

তথ্যসূত্র: বিবিসি, ক্রিকইনফো