রাণীশংকৈলে সাদ পন্থিদের ইজতেমা ঠেকাতে মানববন্ধন

প্রকাশিত: ৫:৫১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২০, ২০১৯ | আপডেট: ৫:৫২:অপরাহ্ণ, আগস্ট ২০, ২০১৯
ছবি: টিবিটি

মোঃ বিপ্লব, রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল দিবদিঘী মোড়ে গতকাল মঙ্গলবার মাওলানা সা’দ কান্ধলবী পন্থিদের জেলা ইজতেমা ঠেকাতে মাওলানা জুবায়েদ পন্থিরা ঠাকুরগাঁও জেলা ওলামায়ে কেরাম, তাবলীগের সাথী ও সর্বস্তরের তাওহীদির ব্যানারে মানব বন্ধন করেছে।

এসময় বক্তরা বলেন, তাবলীগ জামাতের বির্তকিত ব্যাক্তি সা’দ পন্থীরা জেলা ইজতেমা যেন না করতে পারে এজন্য প্রশাসনকে লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

এরপরও যদি সেখানে ইজতেমা হয় প্রয়োজনে মাথার পাঘরি কোমরে বেঁধে আমরা প্রতিহত করবো। চট্রগ্রামের হাটহাজারী থেকে আল্লামা শফি সাহেবকে এনে গনজমায়েত করবো। বক্তারা আগামি ২২ আগষ্ট পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে মহাসমাবেশের ঘোষনা দেন।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন নেকমরদ ওলামা পরিষদ সম্পাদক মৌঃ রাজিউল ইসলাম রাজু, ওলামাদের মুরব্বি মাহমুদুল্লাহ, লাহিড়ী জামে মসজিদের খতিব মজিবুর রহমান, পীরগঞ্জ ইমাম ওলামা পরিষদ সম্পাদক নুরুজাম্মানের পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন ঠাকুরগাঁও মারাক্কাজ মসজিদের ইমাম জামিল আহাম্মেদ, তাবলীগ জামাতের জেলা জিম্মাদার বদরুজাম্মান কামাল, প্রারম্ভিক বক্তা মহিলা মাদ্রাসার অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আলম, জেলা ইমাম ওলামা পরিষদ সভাপতি উবাইদুল মতিন প্রমুখ।

উল্লেখ্য, তাবলীগ জামাতের ৩ দিন ব্যাপী (২২-২৪ আগষ্ট) জেলা ইজতেমা করতে রাণীশংকৈল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে সা’দ পন্থী তাবলীগ জামাতের লোকজন।

এব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মান্নান বলেন, ইজতেমা ব্যাপারে অনুমতি দেওয়ার মালিক জেলা প্রশাসক মহোদয়। তবে আইনশৃংখলা রক্ষার্থে সজাগ সর্তক অবস্থানে আমরা রয়েছি।