রাবাদাদের মতো আইপিএলে গেলে কী হতো সাকিবদের, ভাবতেই পারছেন না মাশরাফি

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭:২০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৭, ২০২১ | আপডেট: ৭:২০:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৭, ২০২১
ছবি: সংগৃহীত

চলছে পাকিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচ। আগের দুই ম্যাচে দুই দল একটি করে জয় পাওয়ায় এটা অলিখিত ফাইনাল হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু এ ম্যাচে নেই প্রোটিয়াদের অনেক নামীদামী তারকা খেলোয়াড়। বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন শেষে যাতে আইপিএলের শুরু থেকেই খেলতে পারেন তাই আগেই দেশ ছেড়েছেন তারা। ঠিক এমনটা কোনো বাংলাদেশের খেলোয়াড় করলে কি হতে পারতো তা ভাবতেই পারছেন বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

আগামী ৯ এপ্রিল থেকে শুরু হবে আইপিএলের ১৪তম আসর। তার আগে কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে ক্রিকেটারদের। তাই কাগিসো রাবাদা, কুইন্টন ডি কক, লুঙ্গি এনগিডি, ডেভিড মিলার ও আনরিক নরকিয়া ছুটি নিয়েছেন।

অন্যদিকে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ না খেলে এবারের আইপিএল খেলতে চিঠি দিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড় সাকিব আল হাসানকে। শেষ পর্যন্ত অবশ্য সাকিবের ছুটি মঞ্জুর করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। পাশাপাশি আইপিএল খেলতে আরেক টাইগার তারকা মুস্তাফিজুর রহমানকেও অনাপত্তি সনদ (এনওসি) দেয়া হয়।

সম্প্রতি গণমাধ্যমে ক্রিকেট বোর্ডের সমালোচনা করে সমালোচনা করতে দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফিকে। দক্ষিণ আফ্রিকা ও বাংলাদেশ দলের আইপিএল খেলতে যাওয়ার প্রসঙ্গটি এক করে ফেসবুকে একটি পোস্ট করেছেন লাল-সবুজদের সবচেয়ে সফলতম অধিনায়ক।

তিনি লিখেছেন, ‘ডেভিড মিলার, কাগিসো রাবাদা, আনরিক নরকিয়া, লুঙ্গি এনগিডি, ডি কক সবাই ফর্মে আছে এবং প্রথম দুই ম্যাচেই ভালো পারর্ফম করছে। আজ দেখছি সিরিজ ডিসাইড ম্যাচে তারা নেই। কারণ বুঝলাম কোয়ারেন্টিন পুরোন করতে হবে আইপিএলের জন্য। ম্যাচের ৩০ ভাগ শেষ কিন্তু কোনও আওয়াজ নাই কমেন্ট্রিতে বা অন্য কোথাও।’

দেশের ক্রিকেটের সংস্কৃতি মনে করিয়ে দিয়ে মাশরাফি বলেন, ‘কল্পনায় আনতে পারছিনা, এরকম অবস্থায় আমাদের কেউ গেলে কী হতে পারতো। সাকিব আল হাসান, মুস্তাফিজুর রহমান আল্লাহ তোদের সহায় হোন…।’