রাবি উপাচার্যের বাসভবনে তালা ছাত্রলীগের

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:৫৭ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০২১ | আপডেট: ১১:৫৭:পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০২১

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) উপাচার্যের বাসভবনে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছেন চাকরি প্রত্যাশী ছাত্রলীগ নেতারা। মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞার মধ্যে একজনকে নিয়োগ দেয়ার পর সোমবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহানের বাসভবনে দেখা করতে গিয়ে রাত ৯টার দিকে উপাচার্যের বাড়ির প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেন তারা।

বিষয়টি স্বীকার করে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ফারুক হাসান বলেন, ১৯৭৩ এর এ্যাক্ট অনুযায়ী চারটি বিশ্ববিদ্যালয় চলে, এর মাঝে রাবি একটি।

কয়েকদিন আগে দেখেছি উপাচার্যের ওপর কিছু কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠাচ্ছে শিক্ষামন্ত্রণালয়। নিয়োগ দেওয়ার বিষয়ে একটা নিষেধাজ্ঞাও দিয়েছে।

এসময় তিনি আরও বলেন, আমরা উপাচার্য স্যারের কাছে জানতে চেয়েছি তারা এটি পারে কিনা? তখন স্যার বলেছেন, এটা ৭৩ এর এ্যাক্টের লঙ্ঘন। এটা তাদের পার্সোনাল ইন্টারেস্টের জায়গা থেকে আমাকে ব্লক করতেছে।

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বলেন, আমরা জানতে পেরেছি সব ধরনের নিয়োগ বাতিল রাখার নির্দেশনা থাকা সত্ত্বেও আজ এডহকে একজনকে সেকশন অফিসার পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের কেন চাকরি হচ্ছে না সেটি জানতেই নেতাকর্মীরা গিয়েছিলেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান বলেন, বাসভবনের মধ্যে অবরুদ্ধ আছেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম আব্দুস সোবহান, উপ-উপাচার্য আনন্দ কুমার সাহা, উপ-উপাচার্য চৌধুরী মোহাম্মদ জাকারিয়া, প্রক্টর এবং কয়েকজন সহকারী প্রক্টর।

মূলত করোনার আগে বেশ কয়েকটি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ছিল। করোনার কারণে সেগুলোর নিয়োগ কার্যক্রম শেষ করা যায়নি। অনেক চাকরি প্রত্যাশী আছেন। কিন্তু শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা আছে তাই স্যার কিছু করতে পারবেন না।

এদিকে রাত ১১টা পর্যন্ত আন্দোলনকারীরা উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান করছিলেন বলে জানা যায়। প্রসঙ্গত, গত ১০ ডিসেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয় এক চিঠিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল নিয়োগ স্থগিত করে দেয়।