রুশ সুন্দরীর সঙ্গে মালয়েশিয়ার রাজার বিচ্ছেদ নিয়ে নতুন নাটক

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:০৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ২১, ২০১৯ | আপডেট: ৯:০৪:অপরাহ্ণ, জুলাই ২১, ২০১৯

মালয়েশিয়ার সাবেক রাজা কেলান্তানের সুলতান পঞ্চম মুহাম্মদের দাম্পত্য জীবন নিয়ে নতুন এক নাটক সৃষ্টি হয়েছে। তার আইনজীবীরা নিশ্চিত করেছেন যে, সাবেক এই রাজা তার রাশিয়ান গ্লামারাস স্ত্রী, টিভির সাবেক রিয়েলিটি তারকা ওকসানা ভিওভোদিনার (২৭) সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটিয়েছেন।

তিনি বিবাহ বিচ্ছেদের খবরকে প্রহসন বলে আখ্যায়িত করেছেন। বলেছেন, রাজা সুলতান মুহাম্মদকে তিনি কখনো ডিভোর্স দেননি। বিশেষ করে, রাজার সঙ্গে তার অন্তরঙ্গ কিছু ভিডিও পোস্ট দিয়ে টুইট করেছেন। তাতে তাদের বেশ হাসিখুশি দেখা যায়। ফলে বিষয়টি নিয়ে বেশ কৌতুহলের সৃষ্টি হয়েছে।

বৃটিশ ট্যাবলয়েড পত্রিকাগুলোতে প্রকাশিত খবরে এ কথা বলা হয়েছে। এতে বলা হয়, ওকসানা ভিওভোদিনা রাশিয়ান বিউটি কুইন। রাজার সঙ্গে তার বিচ্ছেদের বিষয়টি তাকে চার সপ্তাহ আগে জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

রাশিয়ান এই সুন্দরী আবার রিহানা ওক্সানা গর্বাটেঙ্কো নামেও পরিচিত। তিনি সর্বশেষ যে টুইট দিয়েছেন এই সপ্তাহে তাতে ব্যবহার করা হয়েছে রোমান্টিক একটি ভিডিও। এতে সাবেক রাজা সুলতান মুহাম্মদের সঙ্গে তাকে একসঙ্গে দেখা যায়। দৃশ্যত তারা দু’জনেই তখন ছিলেন হাসিখুশি। তবে ওই ভিডিও কখন ধারণ করা হয়েছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

সিঙ্গাপুরে রাজার আইনজীবী নিশ্চিত করেছেন, গত মাসে রাজার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে। সেটা হয়েছে শরীয়াসম্মত আইন অনুসারে। সুলতান মুহাম্মদের এই আইনজীবীর নাম কোহ টিয়েন হুয়া।

তিনি বলেন, রিহানাকে তার আইনজীবী আলেকজান্দার দোব্রোভিনস্কি অ্যান্ড পার্টনারস অব রাশিয়ার মাধ্যমে গত ২২ শে জুন বিচ্ছেদের কথা জানিয়ে দেয়া হয়েছে। তাকে এটাও জানিয়ে দেয়া হয়েছে, এই বিচ্ছেদ পরিবর্তনযোগ্য নয়। বিচ্ছেদ সংক্রান্ত একটি সনদও তাকে দেয়া হয়েছে।

এই বিচ্ছেদে অনুমোদন দিয়েছে কেলান্তানের শরীয়া আদালত। ১ জুলাই বিচ্ছেদ চূড়ান্ত করে এখান থেকে বিচ্ছেদ সনদ দেয়া হয়েছে। বিষয়টি বিস্ময়কর এ জন্য যে, রিহানা গত ২১ শে মে সুলতানের প্রথম ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। তারপরই তাকে তালাক দেয়া হয়েছে।

রাশিয়ান সুন্দরী রিহানা গত বছর তুখোড় প্রেমের পর ৫০ বছর বয়সী সাবেক রাজাকে বিয়ে করেন। তবে তিনি বিচ্ছেদ প্রত্যাখ্যান করেছেন।

তিনি বলেন, যখন তালাক দেয়া হয়েছে, তখন আমি আমার সন্তানকে নিয়ে রাশিয়া ছিলাম। বিচ্ছেদ প্রক্রিয়ার জন্য আমরা কোনোভাবেই জুনে সিঙ্গাপুরে ছিলাম না। বিচ্ছেদের নামে এটা একটা প্রহসন। আমরা কখনোই বিচ্ছেদ বা ডিভোর্স দিইনি। এ নিয়ে যে রিপোর্ট প্রকাশ হয়েছে, সে বিষয়ে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন রিহানার মা লুদমিলা গর্বাটেঙ্কো (৪৮)। রিহানার পক্ষে কাজ করছেন মস্কোর আরেকজন আইনজীবী, সাবেক সিনেটর এভগিনি তারলো।

তিনি বলেছেন, অনেক মানুষ আছে, তারা রাজার সঙ্গে রিহানার বিয়েতে বিদ্বেষ পোষণ করে। সাবেক ওই রাজার সঙ্গে রিহানার সম্পর্ক চমৎকার। খুব সুন্দর বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ তারা। তাদের একটি সুন্দর শিশুসন্তান রয়েছে। রিহানা ভালোবাসা থেকে বিয়ে করেছেন। এখনও তাদের মধ্যে বৈবাহিক সম্পর্ক বিদ্যমান। বিচ্ছেদ সম্পর্কে আমাদের কাছে অফিসিয়াল কোনো কাগজপত্র দেয়া হয়নি। এ সম্পর্কে আমরা কিছুই জানি না।