রেহাই পেলো না ৬ বছর বয়সী শিক্ষার্থী

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১:৫৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৮ | আপডেট: ১:৫৩:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৮

নাটোরের বড়াইগ্রামে জনি হোসেন (৬) নামে এক শিশু শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে নজরুল ইসলাম (৩২) নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে। আহত শিক্ষার্থী উপজেরার মাঝগাঁও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর ছাত্র। জখমরত অবস্থায় তাকে বড়াইগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মাঝগাঁও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাসিনা বানু বলেন, বুধবার সকালে স্কুলের প্রথম শিপ্ট ছুটির পরে বন্ধুদের সঙ্গে বাড়ি ফিরছিল জনি। এসময় স্কুলের পাশে পুকুরে বড়শি ফেলে মাছ ধরছিল মাঝগাঁও গ্রামের নজরুল ইসলাম। জনি কৌতুহল বসত পুকুরে ঢিল ছুঁড়লে নজরুল তাকে বেদম মারপিট করে।

বুধবার বিকেলে বড়াইগ্রাম হাসপাতারে গিয়ে দেখা যায় জনি হাসপাতালের বিছানায় যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছে।

কর্তব্যরত চিকিৎষক খালিদ হোসেন বলেন, প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে জনির বাঁম হাত ভেঙ্গে গেছে।

অভিযুক্ত নজরুল ইসলাম মোবাইল ফোনে জানান, তিনি জনির চিকিৎসা বাবাদ ৯ হাজার টাকা দিয়ে বিষয়টি মীমাংসা করে নিয়েছেন।

বড়াইগ্রাম থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিলিপ কুমার দাস বলেন, এখনও কেঊ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।