রোহিঙ্গারা এত মোবাইল-সিম পায় কোথায়?

প্রকাশিত: ১২:৩৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৯ | আপডেট: ১২:৩৭:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৯
পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। ফাইল ছবি

বাংলাদেশের নাগরিক না হওয়া সত্ত্বেও রোহিঙ্গাদের মোবাইল ও সিমকার্ড ব্যবহারের বিষয়টি নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তারা এত সিম ও মোবাইল কোথায় পায় জানতে চেয়েছেন তিনি।

শুক্রবার (৩০ আগস্ট) সিলেট জেলা ও মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের এক অনুষ্ঠানে প্রধান অথিতির বক্তব্য শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য জানতে চান তিনি।

আব্দুল মোমেন বলেন, ‘বাংলাদেশের নাগরিক না হওয়া সত্ত্বেও রোহিঙ্গারা মোবাইল ও সিমকার্ড কোথায় পায়? কারা এই সিম ও মোবাইল তাদের হাতে তুলে দিয়েছে তাদেরকে চিহ্নিত করতে হবে।’ এ লক্ষ্যে কাজ শুরু হয়েছে বলেও জানান তিনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘অনেকে তাদের জন্য দু-কুড়াল তৈরি করছে।’ যারা দা, নিংড়ানিসহ অস্ত্র ও সমাবেশে ব্যানার, ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ড যোগান দিয়েছে তাদেরকেও সরকারের কাছে জবাবদিহি করতে হবে বলে হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

এ সময় যে সকল বেসরকারী সংস্থা শর্তের বাইরে গিয়ে রোহিঙ্গাদের নানাভাবে সহযোগীতার নামে উষ্কানিমুলক ইন্ধন দিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বিগত সময় রোহিঙ্গারা যে এত বড় সমাবেশ করলো তা কিভাবে করেছে বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখছে সরকার। মিয়ানমারকে তাদের নিজ ইচ্ছায় রোহিঙ্গা সমাধান করতে হবে, বাংলাদেশ ইচ্ছে করলেই মিয়ানমারকে জোর করে আলোচনায় আনতে পারবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘গত ২২ তারিখে তারা যে একটি প্রেসরিলিজ পাঠায় তার বর্ণনায় তারা সম্পূর্ণ মিথ্যা বিষয়গুলো উল্লেখ করেছিল ছিল বলেই বিশ্বের অন্য সকল রাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতদের বিষয়টি অবহিত করে বাংলাদেশ। রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে শুধু বাংলাদেশ নয় এটি সমাধানে সকল দেশকেই সমান ভাবে এগিয়ে আসতে হবে।’