রোহিঙ্গা মুসলমানদের গণহত্যায় ভূমিকা ছিলো ইহুদিবাদী ইসরাইলের!

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১:১৯ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৯ | আপডেট: ১:১৯:পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৯
ছবিঃ সংগৃহিত

মার্কিন নিউজ পর্যবেক্ষণকারী ওয়েবসাইট আল-মনিটর মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর দেশটির সেনাবাহিনীর চালানো গণহত্যা ও দমন অভিযানে ইহুদিবাদী ইসরাইলের ভূমিকা থাকার খবর দিয়েছে ।

২০১৭ সালের আগস্ট মাস থেকে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও দেশটির উগ্র বৌদ্ধরা রাখাইন প্রদেশের রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিরুদ্ধে হত্যা, ধর্ষণ ও লুটপাটসহ ভয়াবহ মানবতা বিরোধী অপরাধ চালায়।

ওই দমন অভিযানে অন্তত ছয় হাজার নিরীহ মুসলমান নিহত ও অপর আট হাজারের বেশি রোহিঙ্গা আহত হন। এ ছাড়া, সহায়-সম্বল হারিয়ে প্রাণ ও সম্ভ্রম বাঁচাতে বাংলাদেশে আশ্রয় নেন ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা মুসলমান।

ওয়েবসাইটটি বুধবার এক প্রতিবেদনে লিখেছে, ইসরাইল মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর কাছে অস্ত্র বিক্রি অব্যাহত রেখে রোহিঙ্গা মুসলমান হত্যায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

আল-মনিটর আরো লিখেছে, মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ইহুদিবাদী ইসরাইলসহ পশ্চিমা দেশগুলোর কাছ থেকে সংগ্রহ করা অস্ত্র দিয়ে যে রোহিঙ্গা মুসলমানদের হত্যা করেছে তার যথেষ্ট প্রমাণ রয়েছে।

জাতিসংঘ মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিরুদ্ধে ‘জাতিগত শুদ্ধি অভিযান’ চালানোর জন্য দেশটির সেনাবাহিনীকে দায়ী করেছে। এ ছাড়া, এই সেনাবাহিনীকে বিশ্বের সবচেয়ে নিকৃষ্ট সেনাবাহিনী হিসেবেও উল্লেখ করেছে জাতিসংঘ।