লকডাউনে ঋণের কিস্তি আদায় বন্ধের দাবি জানিয়েছে বাসদ

প্রকাশিত: ৬:৪৮ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৯, ২০২১ | আপডেট: ৬:৪৮:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৯, ২০২১
বাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান। ছবি: সংগৃহীত

গ্রাম ও শহরের শ্রমজীবী মানুষের কাছ থেকে লকডাউনে এনজিও ও ঋণের কিস্তি আদায় বন্ধের দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ দাবি জানান।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, করোনা মোকাবেলায় অপরিকল্পিত ও প্রস্তুতিহীন লকডাউনে কর্মহীন গ্রাম-শহরের শ্রমজীবী মানুষ এমনিতেই আয় রোজগার হারিয়ে অভাব অনটনে বিপর্যস্ত। এরপর এনজিও এবং মহাজনী ঋণের কিস্তি আদায়ের নামে হয়রানী গ্রামের দিনমজুর, শহরের হকার ও রিকশা চালকসহ দিন আনে দিন খায় মানুষেরা দিশেহরা অবস্থায় পড়েছে। মানুষ জীবন নিয়ে শংকিত হয়ে পড়লেও সরকারের পক্ষ থেকে দৃশ্যমান কোন সহযোগিতা দেশবাসী লক্ষ্য করছে না বলে তিনি উল্লেখ করেছেন।

বিবৃতিতে খালেকুজ্জামান বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মানা ও লকডাউন কার্যকর করতে হলে হতদরিদ্র দিন আনে দিন খায় শ্রমজীবী মানুষদের খাদ্য সামগ্রী, নগদ অর্থ ও চিকিৎসা দেওয়ার দাবি আগে থেকেই জানানো হলেও সরকার তা কানে তুলছে না। ফলে লকডাউন বাস্তবে অকার্যকর হয়ে পড়ছে। জীবন এবং জীবিকা দু’টোই রক্ষা করতে অবিলম্বে প্রতি পরিবারকে এক মাসের খাদ্য সামগ্রী ও নগদ ৫ হাজার টাকা এবং সকল নাগরিককে বিনামূল্যে করোনা টেস্ট, চিকিৎসা ও ভ্যাকসিন দেওয়ার দাবি জানান তিনি।