শান্তর বদলে আবার একাদশে সৌম্য!

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩:০৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৮ | আপডেট: ৩:০৪:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৮

তামিম ইকবালের ইনজুরি হঠাৎই সুযোগ করে দিয়েছিল তাকে। কিন্তু সে সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি নাজমুল হোসেন শান্ত। আফগানিস্তানের সঙ্গে দুইবার আর ভারতের সাথে একবার-মোট তিন ম্যাচে শান্তর সাকুল্যে রান ২০ (৭+৬+৭)।

নিজেকে মেলে ধরতে না পারার কারণে পাকিস্তানের বিপক্ষে অঘোষিত সেমির যুদ্ধে একাদশ থেকে জায়গা হারাতে যাচ্ছেন বাঁহাতি শান্ত। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নুর দেয়া তথ্য অনুযায়ী, আজ শান্তর বদলে ওপেনিংয়ে লিটন দাসের সঙ্গে খেলবেন সৌম্য সরকার।

বুধবার দুপুরে সাথে আলাপে প্রধান নির্বাচক জানান, দলে কিছু ইনজুরি আছে, সেইসঙ্গে শান্তর রান না পাওয়া নিয়েও দুশ্চিন্তা আছে। তাই তাকে বাদ দিয়ে সৌম্যকে খেলানোর কথাই ভাবা হচ্ছে। এছাড়া প্রচণ্ড গরম ও উষ্ণ আর্দ্র আবহাওয়ায় আরও একাধিক ক্রিকেটারের ফিটনেসে ঘাটতি দেখা দিয়েছে। তাদের দলে থাকা নিয়েও আছে সংশয়।

তবে শান্তর বাদ পড়াটা যতটা জোর দিয়ে বলেছেন নান্নু, ফিটনেসে ঘাটতি থাকা জন দুয়েক ক্রিকেটারের না খেলার ব্যাপারে ততটা নিশ্চিত করে বলতে পারেননি প্রধান নির্বাচক। শুধু বলেছেন, মাঠে গিয়ে শেষ মূহুর্ত পর্যন্ত ফিটনেস লেভেল দেখে তারপর সিদ্ধান্ত হবে।

অমিত সম্ভাবনায় শুরু করা সৌম্য সরকার গত বছর থেকেই নিজেকে হারিয়ে ফেলেছেন। রানখরায় ভোগা এই বাঁহাতি ওপেনার প্রায় দশ মাস ওয়ানডে দলের বাইরেও ছিলেন। সর্বশেষ তিনি একদিনের ম্যাচ খেলেছেন গত বছরের অক্টোবরে দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে।

১২ ম্যাচ পর আবারও একাদশে ফেরার অপেক্ষায় সৌম্য। অফফর্মের কারণে এশিয়া কাপের দলে জায়গা হয়নি শুরুতে। পরে ওপেনার লিটন-শান্তর ব্যাট কথা না বলায় তড়িঘড়ি করে ইমরুল কায়েসের সঙ্গে আরব আমিরাত পাঠানো হয় সৌম্যকে।

মাঝের সময়টায় হাই পারফরম্যান্স ইউনিট আর ‘এ’ দলের চারদিনের ম্যাচে ফিফটি হাঁকিয়ে টিম ম্যানেজম্যান্টের আস্থা ফিরে পান। তারও আগে আয়ারল্যান্ডের মাটিতে ‘এ’ দলের হয়ে একটি ফিফটি ও একটি ৪৭ রানের ইনিংস খেলেছিলেন বাঁহাতি এই ওপেনার।

বোঝাই যাচ্ছে, শান্ত নিজেকে খুঁজে না পাওয়ায় নির্বাচকরা আবারও সৌম্যর শরণাপন্ন হতে চাচ্ছেন। তার সামর্থ্য প্রমাণিত। আজ যে দলের বিপক্ষে খেলা, সেই পাকিস্তানের সাথেই ওয়ানডে ক্যারিয়ারে প্রথম সেঞ্চুরি (২০১৫ সালের ২২ এপ্রিল শেরে বাংলায় ১১০ বলে ১২৭ রানের হার না মানা ইনিংস) করেছিলেন সৌম্য। আজ আবার সুযোগ পেলে সৌম্য কি নিজেকে মেলে ধরতে পারবেন?