শিক্ষক করোনায় আক্রান্ত, ‘অনির্দিষ্ট কাল’ ভারতের স্কুল বন্ধ ঘোষণা

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:২৩ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১ | আপডেট: ৬:২৩:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১

করোনাকালে সব ধরনের সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েই অন্য একাধিক রাজ্যের পাশাপাশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিয়েছিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। তবে স্কুল খোলার পরেই বাধলো বিপত্তি। করোনা আক্রান্ত হয়েছে কসবা চিত্তরঞ্জন হাই স্কুলের এক শিক্ষক।

স্কুল সূত্রে জানা গিয়েছে, আরও দুই শিক্ষকও জ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে তড়িঘড়ি স্কুলটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্কুলটি স্যানিটাইজ করা হবে। আপাতত স্কুল বন্ধই থাকছে। স্কুল ফের কবে খুলবে তা নোটিশ দিয়ে জানানো হবে বলে স্কুল কর্তৃপক্ষের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গে করোনা-গ্রাফ ফের ঊর্ধ্বমুখী। নতুন করে রাজ্যে উদ্বেগ বাড়াতে শুরু করেছে করোনাভাইরাস। মঙ্গলবার ভারতের স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, একদিনে পশ্চিমবঙ্গে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৮৯ জন। নতুন করে আক্রান্তদের মধ্যে ৬৩ জন কলকাতার বাসিন্দার। উত্তর ২৪ পরগনার বাসিন্দার ৫৯ জন। সব মিলিয়ে ঐ রাজ্যে নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৫ লক্ষ ৭৪ হাজার ৯৯ জন।

নিউ নর্মালে আগেই ভারতের অন্য বেশ কয়েকটি রাজ্যে খুলে গিয়েছিল স্কুল। কয়েক সপ্তাহ আগেই পশ্চিমবঙ্গে কোভিড প্রোটোকল মেনে খুলে যায় স্কুল। তবে করোনা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে আপাতত নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত পড়ুয়াদেরই স্কুলে যাওয়ায় ছাড়পত্র মিলেছে। করোনার সংক্রমণ এড়াতে স্কুলে সেকশন বেড়েছে। যা নিয়ে সমস্যাও বেড়েছে একাধিক স্কুলের। স্কুলগুলিতে বেশি সেকশন হওয়ায় অনেক স্কুলেই শিক্ষকের সংখ্যা কম পড়ছে।