শিশুদের ‘গলাকাটা’ আতঙ্ক চরফ্যাশনে

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৫৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ৬, ২০১৯ | আপডেট: ১০:৫৩:অপরাহ্ণ, জুলাই ৬, ২০১৯
ফাইল ছবি

চরফ্যাশনবাসীর মধ্যে শিশুদের গলাকাটার আতঙ্কে রাত জেগে পাহারা দেয়ার মতো ঘটনা ঘটেছে।

শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত শহর গ্রামগঞ্জের পাড়ামহল্লায় গলাকাটা ও পোলাচোর নামছে এমন সংবাদ আসছে।

বেশ কয়েকটি স্থান থেকে গলাকেটে ও শিশুদেরকে নিয়ে যাওয়ার ধূম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে। আতঙ্কিত হয়েছে পুরো চরফ্যাশন উপজেলায়।

আহম্মদপুর ইউপির ফরিদাবাদ গ্রামের নুরুল ইসলাম জানান, চরফ্যাশন কলমীতে ১০ জনের গলাকেটে নিয়ে গেছে। তিনি তার সন্তানদেরকে মোবাইল ফোনে নাতি এবং নাতনিদেরকে সতর্ক রাখার পরামর্শ দেন।

ছেলেরা জানতে চাইলে প্রতি উত্তরে তিনি বলেন, আমাকে মোবাইল ফোনে কলমী থেকে জানিয়েছে। পৌরসভা ৯ নম্বর ওয়ার্ড বাসিন্দা পিয়ারা বেগম বলেন, চৌমহনী থেকে এক মেয়ের গলাকেটে নিয়ে গেছে শুনেছি। আসলামপুর আবুগঞ্জ বাজার এলাকায় এমন সংবাদে পুরো রাত জেগে পাহারা দিচ্ছে গ্রামবাসী।

পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সাজু বলেন, ব্রিজে নাকি শিশুবাচ্চাদের মাথা লাগবে। এজন্য মাথাচোর নামছে। এমন সংবাদ শুনতে না শুনতে শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টায় চোর ঢুকে আসলামপুর বাজার সংলগ্ন সিকদার বাড়িতে।

কুকুরের ডাক শুনে (খেওয়ানি) সিকদার বাড়ির আলমগীর সিকদার জানালার ফাঁক দিয়ে চোর দেখতে পেয়ে চিৎকার দিলে পুরো গ্রামের মানুষ লাঠিসোটা নিয়ে চতুরপাশ ঘিরে ফেলার আগে চোর পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে।

এ ব্যাপারে চরফ্যাশন থানা (ওসি) সামসুল আরেফীন বলেন, শুক্রবার রাতে আমাকেও একটি গ্রাম থেকে গলাকাটার সংবাদ জানিয়েছে। এমন সংবাদের কোনো অস্থিত্ব নেই।

আমরা তদারকি করেছি। আসলে এটা একটা গুজব (রিউমার) ছড়ানো হচ্ছে একটি মহল এই গুজব ছড়াচ্ছে। তারপরও আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছি, বলেন তিনি।