শীতকালে কেন বেশি বিয়ে হয়?

প্রকাশিত: ৬:১০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৩, ২০১৯ | আপডেট: ৬:১০:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৩, ২০১৯
প্রতিকী ছবি

শীতকাল – নামটি শুনলেই যেন এক ধরণের শিহরণ কাজ করে মনের ভেতর। শীতকাল মানেই যেন আনন্দ আর উৎসবের ছড়াছড়ি। এই সময়েই বিয়ের প্রচলন বেড়ে যায় যেন বহুগুণে। এই জন্য শীতকালকে বলা হয়ে থাকে বিয়ের মৌসুম। শীতের সময় দিন ছোট হলেও বিয়ের আয়োজনে পাওয়া যায় নানা রকম সুবিধা।

অতিরিক্ত টাকা খরচ হয় না

শীতের সময়ে অনেকেই শারীরিক অসুস্থতার জন্য খাওয়া দাওয়া কমিয়ে দেন বা বেশি খেতে পারেন না। তাই বিয়ের খাওয়ার খরচ কম হবে চিন্তা করে অনেকেই বিয়ে এই সময়ে বিয়ে করে থাকেন।

বিদ্যুৎ বিল কম আসে

শীতকালে গরমকালের মত ফ্যান বা এসি ব্যবহার করতে হয় না। তাই বিয়ের অনুষ্ঠানে ফ্যান বা এসি প্রয়োজন কম পড়ে। যে কারণে স্বাভাবিক ভাবেই বিদ্যুৎ বিলও কম আসে।

শীতে পরিশ্রম করা সহজ

একটি বিয়ের অনুষ্ঠান আয়োজন করতে কত রকমই না পরিশ্রম আর কাজ করতে হয়। প্রায় ১ মাস আগে থেকে শুরু হয়ে যায় প্রস্তুতি। কিন্তু এই সময়ে গরমকালের মত কাজ করলেই এনার্জি চলে যায় না। তাই বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে ক্লান্তি আসে না।

বিয়ের সাজ

আমাদের দেশে বিয়ের সাজ একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। শীতে বিয়ের সাজ অনেক সময় থাকে আর ভারী কাপড়ে অস্বস্তিও লাগে না। তাই বর কনে এই সময়টিকেই বেছে নেন বিয়ের জন্য।

ফুলের দাম কম থাকে

শীতকালকে বলা হয় ফুলের মৌসুম। বাজারে এই সময়ে ফুলের কোনো কমতি থাকে না আর দামও তুলনামূলক ভাবে কম থাকে। তাই স্টেজ ডেকরেট ও বিয়ের নানা আয়জনে ফুল কিনতে খরচ অনেক কম হয়ে থাকে। তাই অনেকেই এখান থেকেও বেশ কিছু টাকা সাশ্রয় করতে পারেন।