শোয়েব আখতারের চেয়েও জোরে বল ছুঁড়বেন নর্টজে!

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:৩৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০২০ | আপডেট: ৯:৩৫:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০২০

শোয়েব আখতার, ব্রেট লিরা খেলা ছেড়ে দেওয়ার পর ক্রিকেটে গতি তারকার দেখা মেলা ভার। অস্ট্রেলিয়ার শন টেইট কিছুদিন ঝড় তুলেছিলেন, এরপর ডেল স্টেইন হয়ে এখন আছেন অসি বাঁহাতি মিচেল স্টার্ক ও ইংল্যান্ডের ডানহাতি জোফরা আর্চার। তবে নিয়মিতভাব ঘণ্টায় ১৫০ কিলোমিটার গতির ডেলিভারি দেওয়া বোলার নেই একজনও।

এমন যখন অবস্থা, তখন আইপিএলে দেখা মিলল নতুন এক স্পিড-গানের! দক্ষিণ আফ্রিকার ২৬ বছর বয়সী অ্যানরিচ নর্টজে এক ওভারের ছয় ডেলিভারির চারটিই করেছেন ঘণ্টায় ১৫২ কিমির বেশি গতিতে। যার মধ্যে একটি আইপিএল ইতিহাসের সবচেয়ে দ্রুতগতির ডেলিভারি। মোটের ওপর টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ গতির সেরা দশ ডেলিভারির পাঁচটিই করে ফেলেছেন এবারই প্রথমবার আইপিএল খেলতে নামা নর্টজে।

কেবল তাই নয়, আইপিএলের ইতিহাসের ২য় ও ৩য় সর্বোচ্চ গতির বলও করেছেন নর্টজে।

রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে বুধবার ১৫৬.২২ কি.মি গতিতে বল করেছেন এই প্রোটিয়া পেসার। যেটি ক্রিকেট ইতিহাসেরই অন্যতম সর্বোচ্চ গতির বল।

ক্রিকেটের সবচেয়ে জোরে বলটা ছুঁড়েছিলেন পাকিস্তানি গতিতারকা শোয়েব আখতার। ২০০৩ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে রেকর্ড ১৬১.৩ কি.মি গতিতে বল করেছিলেন পিন্ডি এক্সপ্রেস। ১৭ বছরেও সেই রেকর্ড ভাঙতে পারেনি কেউ। তবে পাকিস্তানি সাবেক তারকাকে আগাম হুঁশিয়ারি জানিয়ে রাখলেন নর্টজে।

ইউটিউবে দিল্লি ক্যাপিটালসের সতীর্থ রবিচন্দন অশ্বিনের সঙ্গে আলোচনায় নর্টজে বলেন, গতিতে বল করার বিষয়টা আমি ভালোভাবে আয়ত্ব করতে পেরেছি এবং অবশ্যই আমি চাই সর্বোচ্চ গতিতে বল করতে। ভালো উইকেট পেলে এবং সবকিছু ঠিক থাকলে হয়তো এই আইপিএলেই কিংবা পরবর্তীতে কোথাও আমি রেকর্ডটা গড়তে পারবো।

তবে রাজস্থানের বিপক্ষে ম্যাচে নিজের ১ম ওভারেই ১৫০ এর ওপরে বেশ কয়েকটি ডেলিভারি করে আলোচনা ফেলে দেয়া নর্টজে নাকি জানতেনই না রেকর্ড হয়ে গেছে!

নর্টজে বলেন, ম্যাচ শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত জানতাম না ওটা ১৫৬ কি.মি গতির বল হয়ে গেছে। স্কোরবোর্ডে অমন কিছুই দেখায়নি। আমার কোনো আইডিয়াই ছিল না।