সংসদ সদস্যদের আগে করোনা ভ্যাকসিন নেওয়া দরকার : ফখরুল

প্রকাশিত: ৯:১০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৫, ২০২১ | আপডেট: ৯:১০:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৫, ২০২১
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবি

অযোগ্য, পক্ষপাতদুষ্ট এবং দুর্নীতিগ্রস্ত নির্বাচন কমিশনের ওপর আস্থা নেই উল্লেখ করে অবিলম্বে তাদের পদত্যাগ দাবি করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এসময় তিনি প্রধানমন্ত্রী এবং মন্ত্রীদেরকে সবার আগে ভ্যাকসিন নেওয়ার আহ্বান জানান।

সোমবার (২৫ জানুয়ারি) স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে গঠিত দলের রংপুর বিভাগীয় কমিটির প্রস্তুতিমূলক সভায় যোগ দিতে রংপুরে এসে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সরকার প্রধান ও মন্ত্রীরা আগে করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে জনগণকে ভ্যাকসিন নিতে সাহস জুগিয়েছেন। কিন্তু বাংলাদেশে তার চিত্র উল্টো। মানুষের আস্থা সৃষ্টি করতে প্রধানমন্ত্রীসহ সংসদ সদস্যদের আগে করোনা ভ্যাকসিন নেওয়া দরকার।

এসময় মির্জা ফখরুল যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্য-রাশিয়াসহ বিভিন্ন দেশের উদাহরণ দিয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রী, সংসদ সদস্যদের সবার আগে করোনার ভ্যাকসিন নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, নেতিবাচক প্রচারণার কারণে সন্দেহ সৃষ্টি হওয়ায় চিকিৎসকরাই আগে ভ্যাকসিন নিতে চাচ্ছেন না।

তিনি বলেন, স্বাধীনতার যুদ্ধের সঙ্গে শহীদ জিয়াউর রহমান ইতিহাস হয়ে আছেন। এই ইতিহাস মুছে ফেলা যাবে না। তাই এই মহান সুর্বণ জয়ন্তীতে বিএনপির প্রতিটি নেতাকর্মীকে শহীদ জিয়ার বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠার সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়ে রাষ্ট্রের মালিকানা জনগণের হাতে ফিরে আনতে হবে।

সভায় বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ও রজত জয়ন্তী পালন রংপুর বিভাগীয় কমিটির আহ্বায়ক সাবেক স্পিকার ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকারের সভাপতিত্বে ও বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এবং উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব অধ্যক্ষ আসাদুল হাবিব দুলুর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন বিএনপির রংপুর বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও দিনাজপুর পৌরসভার নব নির্বাচিত মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সাবেক এমপি বিলকিস ইসলাম, মির্জা ফয়সাল, ফরহাদ হোসেন আজাদ, রিনা বেগম, রংপুর মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সামসুজ্জামান সামু, রংপুর জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম, মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিজু, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রইচ আহমেদ, কুড়িগ্রাম জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান রানাসহ অনেকে।