সখীপুরে কলেজ ছ্ত্রা রবিন হত্যাকান্ডে গ্রেফতার ২ আদালতে ১৬৪ ধারায় দায় স্বীকার

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:৫২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২২, ২০২১ | আপডেট: ৮:৫২:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২২, ২০২১

নজরুল ইসলাম নাহিদ,সখীপুর (টাঙ্গাইল)প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের সখীপুরে কলেজ ছাত্র আনিছুর রহমান রবিন (১৮) হত্যাকান্ডের ঘটনায় গতকাল (২১ ফেব্রæয়ারি) নিহতের মা রাশেদা আকতার বাদী হয়ে ১৫/১৬ জনকে আসামি করে সখীপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছন। পুলিশ এ ঘটনায় বহুরিয়া দক্ষিন পাড়া এলাকার মো.শাহীন খানের ছেলে মো.নাহিম ওরফে ফাহিম খান (১৯) ও একই এলাকার মো.মজনু মিয়ার ছেলে মো.রনি মিয়াকে (১৮) গ্রেফতার করেছে। শুক্রবার সকালে তাদেরকে সখীপুর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (টাঙ্গাইল) বিজ্ঞ আদালতে হাজির করা হলে মো.রনি মিয়া হত্যাকান্ডের দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা (এসআই) শাহিন বলেন,আদালতে আসামিদের রিমান্ডের আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত মো. রনি মিয়ার ২দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও তিনি জানান।

প্রসঙ্গত: গত ১৯ জানুয়ারি উপজেলার বহুরিয়া ইউনিয়নের চতল বাইদ মধ্যপাড়া গ্রামে হালিম পীরসাহেবের বাড়িতে বাৎসরিক বাউল গানের অনুষ্ঠান হয়। সেখানে কলেজ ছাত্র আনিসুর রহমান রবিনের সঙ্গে মো.রাব্বী নামের এক যুবকের ধাক্কা লাগে। ওই ধাক্কা লাগাকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে কাথা কাটাকাটি হয়। অনুষ্ঠান থেকে রাত ১১টার দিকে আনিসুর রহমান রবিন,তার জমজভাই আশিকুর রহমান রনি,সহপাঠী এক খালাতো বোন ও আরও দুই শিশুকে নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে হাজী বাড়ি জামে মসজিদের কাছে আসলে হঠাৎ পেছন থেকে একদল দূর্বৃত্ত তাদের ওপর হামলা করে। তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে আহত আনিছুর রহমান রবিন ও আশিকুর রহমান রনিকে উদ্ধার করে রাত ১টার দিকে সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কতর্ব্যরত চিকিৎসক রবিনকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত আশিকুর রহমান রনিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কলেজছাত্র আনিছুর রহমান রবিন বহুরিয়া ইউনিয়নের চতল বাইদ মধ্যপাড়া এলাকার সৌদি প্রবাসি মো.আমির খানের ছেলে।