সবচেয়ে বড় আম দেখলো বিশ্ব!

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:১৮ অপরাহ্ণ, মে ১, ২০২১ | আপডেট: ৮:১৮:অপরাহ্ণ, মে ১, ২০২১
ছবি: গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস।

লিচু গাছে আম নিয়ে যতোই মাতামাতি হোক, এই ফাঁকে গিনেজে নাম লিখিয়েছে কলম্বিয়ার একটি আম। এবার আর সাজানো নাটক নয়। রেকর্ডধারী আমটির ওজন সোয়া চার কেজিরও বেশি। দেশটির বয়াকা অঞ্চলের এক বাগানে পাওয়া গেলো ৪ কেজি ২৫৬ গ্রাম ওজনের আমটি।

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড কর্তৃপক্ষ সম্প্রতি তাদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে, কলম্বিয়ার গুয়াইয়াতা এলাকায় জার্মা অরল্যান্দো নোভোয়া বারেরা এবং রেইনা মারি মারোকির বাগানে ধরেছে ৪ কেজি ২৫০ গ্রাম ওজনের প্রকাণ্ড একটি আম।

এর আগে বিশ্বের সবচেয়ে ভারী আমের বিশ্বরেকর্ড ছিল ফিলিপাইনের। ২০০৯ সালে দেশটিতে ৩ কেজি ৪৩৫ গ্রাম ওজনের একটি বিশাল আম পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু একযুগ পর সেই রেকর্ড ভেঙে দিয়েছেন কলম্বিয়ান কৃষকরা।

অন্য সময়ের মতো এবারও জার্মা ও রেইনার গাছে বেশ আম ধরেছে। কিন্তু একদিন তারা খেয়াল করেন, এর মধ্যে একটি আম অন্যগুলোর তুলনায় অনেক বেশি বড় হয়ে উঠছে।

বিশালাকার আমটির ওজন নিশ্চিত হওয়ার পর তাদের মেয়ে পরামর্শ দেন, এই ধরনের কোনো রেকর্ড রয়েছে কি না তা খুঁজে দেখতে। পরে দেখা যায়, তাদের গাছে যেটি ধরেছে, আসলেই সেটি বিশ্বের সবচেয়ে ভারী আম।

রেকর্ডবুকে স্বীকৃতির জন্য গিনেস কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে জার্মা পরিবার। আনুষ্ঠানিকভাবে এর স্বীকৃতি মেলার পর আমটি সবাই মিলে মজা করে খেয়েছেন তারা।

জার্মা বলেছেন, কলম্বিয়ার মানুষজন অত্যন্ত বিনয়ী ও পরিশ্রমী- বিশ্বকে এটি দেখানোই তাদের লক্ষ্য। সেখানকার অধিবাসীরা জমি গভীর ভালোবাসা দিয়ে চাষ করেন এবং চমৎকার ফল ফলান।

আমের বিশ্বরেকর্ড গড়ার বিষয়ে এ কৃষক বলেন, এটি মহামারির সময়ে মানুষের কাছে আশা ও আনন্দের বার্তা দেয়। অসাধারণ এই অর্জনটি তিনি গুয়াইয়াতাবাসী এবং উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া প্রকৃতির প্রতি ভালোবাসার উদ্দেশে উৎসর্গ করেছেন।