সবুর খানের বংশধররাই আন্দোলনে উস্কানিদাতা : প্রধানমন্ত্রী

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২:৫১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৬, ২০১৮ | আপডেট: ২:৫১:অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৬, ২০১৮
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি

স্বাধীনতা বিরোধীদের বংশধররা নিরাপদ সড়কের দাবিতে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে ভিন্নখাতে নিয়ে যেতে চেয়েছিলো বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, আন্দোলনকে অস্থিতিশীল করার পেছনে স্বাধীনতাবিরোধী সবুর খানের বংশধররা জড়িত ছিলো।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এ আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যারা স্বাধীনতায় বিশ্বাস করেনি, যারা জাতির পিতাকে হত্যা করেছে, কারাগারে জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করেছে, তারা তো এদেশের উন্নয়ন চায় না। কোমলমতি স্কুল শিক্ষার্থীরা কিছু দাবি নিয়ে রাস্তায় নেমেছে, আমরা তাদের দাবি বাস্তবায়ন করেছি। কিন্তু, কিছু লোক একে সুযোগ হিসেবে নিয়ে ষড়যন্ত্র মেতে উঠেছে।

তিনি বলেন, আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছি, সে সুযোগে তারা উস্কানি দিয়ে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করতে চেয়েছে। তাদের সূত্র কোথায়? বাংলাদেশের স্বাধীনতাবিরোধী সবুর খানের বংশধররা এই আন্দোলনে উস্কানি দিয়েছে।

যে যত বড় হোক না কেন, অন্যায় করলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া রাষ্ট্রের কর্তব্য বলে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নামিদামি সাংবাদিক, সাহিত্যিক হলে তারা অপরাধ করে পার পাবে, তা কেন? সবাই তো পর্যাপ্ত স্বাধীনতা পাচ্ছেন। তারা অনেক জ্ঞানী-বুদ্ধিমান। কিন্তু, তাদের ভেতরে কি এতটুকু দায়িত্ববোধ থাকবে না? উস্কানি দিয়ে যাবে? আর তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিলে কেন হৈ চৈ শুরু হয়ে যাবে?

এ সময় প্রধানমন্ত্রী সাফ জানিয়ে দেন, যত ষড়যন্ত্র হোক না কেন, স্বাধীনতাবিরোধী খুনিদের এদেশের ক্ষমতায় আসতে দেয়া হবে না।