সব শিক্ষার্থীকে ঘুরতে পাঠিয়ে পছন্দের ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:১১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৬, ২০২১ | আপডেট: ৮:১১:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৬, ২০২১

দিনাজপুরের হিলিতে ১০ বছর বয়সী ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে কওমি মাদরাসার এনামুল হক (২৬) নামের এক শিক্ষককে আটক করেছে হাকিমপুর থানা পুলিশ।

হাকিমপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফেরদৌস ওয়াহিদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আজ শনিবার সকাল ১১ টার দিকে মাদরাসা থেকে তাকে আটক করা হয়। তিনি উপজেলার ছাতনী চারমাথা বাজারে অবস্থিত মারকাযুল উলূম আল ইসলামিয়া কওমি মাদরাসার শিক্ষক এবং দিনাজপুর জেলার পার্শ্ববর্তী বিরামপুর উপজেলার তিতশ্বর গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে।

ছাত্রীর নানী মনজুআরা বেগম জানান, প্রতিদিনের ন্যায় শনিবার সকালে তার নাতনী মাদরাসায় পড়তে যায়। পড়া চলাকালে কৌশলে শিক্ষক এনামূল সকল ছাত্রীকে বাইরে থেকে ২০ মিনিট ঘুরে আসতে বলে এবং আমার নাতনিকে ক্লাসেই থাকতে বলে।

এরপর শিক্ষকের কথা মতো সকল শিক্ষার্থীরা মাদরাসারা বাইরে চলে যায়। এ সময় তাকে একা পেয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় ছাত্রীর চিৎকারে আরেক ছাত্রী এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে। শিক্ষক বিষয়টি কাউকে না বলার জন্য হুমকি দিয়ে তাদের ছেড়ে দেয়।

এরপর আমার নাতনি বাড়ি এসে কান্নকাটি শুরু করে দেয়। কি হয়েছে জানতে চাইলে সে কিছুই না বলে কান্নাকাটি করতেই থাকে। পরে তকে উদ্ধার করা অপর ছাত্রী এসে বিষয়টি পরিষ্কার করলে আমরা থানা পুলিশকে অবগত করি।

এদিকে হাকিমপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফেরদৌস ওয়াহিদ জানান, আজকে থানায় মনজুয়ারা নামে একজন তার নাতনিকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ করেছে। আমরা বিষয়টি আমলে নিয়ে ধর্ষণ চেষ্টায় অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করেছি।