সম্পত্তির হিসাব দিলেন নতুন কৃষি কর্মকর্তারা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩:১২ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৮ | আপডেট: ৩:১২:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৮
ফাইল ছবি

কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, কৃষি গবেষণায় সরকারের নানামুখী পদক্ষেপের ফলে দেশে এখন নানা জাতের নিত্যনতুন শস্য উদ্ভাবন হচ্ছে। এই গবেষণার ক্ষেত্র আরো শক্তিশালী করতে বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। গতকাল সোমবার ৩৬তম বিসিএস (কৃষি) ক্যাডারে নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের ওরিয়েন্টশন কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে স্থাবর বা অস্থাবর সম্পত্তির বিবরণসংবলিত একটি ঘোষণাপত্র দিলেন নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত সব কর্মকর্তা। সেই সঙ্গে নিজের বা পরিবারের অন্য সদস্যদের জন্য যৌতুক নেবেন না এবং যৌতুক দেবেন না—এমন একটি অঙ্গীকারনামা দাখিল করেন ৩০০ টাকার নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের (বিএআরসি) অডিটরিয়ামে ওই অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কৃষিসচিব মো. নাসিরুজ্জামান এবং বিএআরসির নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. মো. কবীর ইকরামুল হক। সভাপতিত্ব করেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কৃষিবিদ মোহাম্মদ মহসীন।

কৃষি মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী ৩৬তম বিসিএস (কৃষি) ক্যাডারের ৩০৪ জন নবীন কর্মকর্তা গতকাল যোগদান করেন এবং দিনব্যাপী কর্মশালায় অংশ নেন। ওরিয়েন্টেশন কর্মশালার মাধ্যমে কৃষি মন্ত্রণালয় ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের বিভিন্ন উইং এবং বিভাগীয় কার্যক্রমসহ কর্মকর্তাদের আচরণ বিধিমালা সম্পর্কিত প্রাথমিক ধারণা দেওয়া হয়। নতুন কর্মকর্তারা আগামী ৯ সেপ্টেম্বরের মধ্যে মন্ত্রণালয় থেকে পদায়ন নিয়ে নিজ নিজ কর্মস্থলে যোগ দেবেন। কর্মকর্তাদের আরো দক্ষ করার পাশাপশি সফল সম্প্রসারণ কর্মী হিসেবে গড়ে তুলতে আঞ্চলিক পর্যায়ে সপ্তাহব্যাপী প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হবে বলেও অনুষ্ঠানে জানানো হয়।