সাংবাদিকতায় গোলাম সারওয়ার ও মোয়াজ্জেম হোসেন অনন্য আদর্শের প্রতীক

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:১৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০১৮ | আপডেট: ১২:১৭:অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০১৮

সাংবাদিকতার পেশাদারির ক্ষেত্রে গোলাম সারওয়ার ও মোয়াজ্জেম হোসেন এক অনন্য আদর্শের প্রতীক। তারা দুজনই পেশাদার সাংবাদিকতার মর্যাদা ও মূল্যবোধ প্রতিষ্ঠায় অনুকরণীয় অবদান রেখে গেছেন।

শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক শোকসভায় সাংবাদিক নেতারা তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে স্মৃতিচারণ করে বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

একুশে পদকপ্রাপ্ত দেশবরেণ্য সাংবাদিক সমকাল সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা গোলাম সারওয়ার ও দি ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস পত্রিকার সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেনের মৃত্যুতে এই শোকসভার আয়োজন করা হয়।

সাংবাদিকতা পেশার উন্নয়নে অনন্য অবদানের জন্য গোলাম সারওয়ার ও মোয়াজ্জেম হোসেনের অনুকরণীয় আদর্শকে লালন করার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেন, সম্পাদক হয়েও সংবাদপত্রের প্রাণ বার্তা বিভাগে এই দুই সাংবাদিক আমৃত্যু কাজ করে গেছেন। তাদের কাছ থেকে নতুন প্রজন্মকে অনেক কিছুরই শেখার আছে।

তিনি বলেন, অসাম্প্রদায়িকতা, মহান মুক্তিযুদ্ধ ও জাতির জনক এবং জাতীয় পতাকার প্রতি অবিচল আস্থা নিয়ে তারা সাংবাদিকতার পেশার মর্যাদাকে অনেক উচ্চাতায় নিয়ে গেছেন। সম্পাদকীয় প্রতিষ্ঠান ও সাংবাদিকদের পেশাগত অধিকার সুরক্ষায় তারা যেভাবে কাজ করে গেছেন তা স্মরণীয় হয়ে থাকবে সব সময়।

রিয়াজ উদ্দিন আহমদ বলেন, বাংলাদেশে অর্থনৈতিক সংবাদপত্র প্রতিষ্ঠায় ও প্রতিবেদন তৈরির ক্ষেত্রে মোয়াজ্জেম হোসেন এক বিশাল অবদান রেখে গেছেন। তার নীতি ও আদর্শ অর্থনৈতিক রিপোর্টারদের জন্য সব সময় অনুকরণীয় হওয়া উচিত বলে তিনি মন্তব্য করেন।

গোলাম সারওয়ার দৈনিক সংবাদ, ইত্তেফাক, সাপ্তাহিক পূর্বাণীতে বিভিন্ন পদে কাজ করেছেন। তিনি দৈনিক যুগান্তর ও সমকালের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ছিলেন, তিনি সম্পাদক পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও পিআইবির চেয়ারম্যান ছিলেন।

২০১৪ সালে তিনি সাংবাদিকতায় একুশে পদক পান। গত ১৩ আগস্ট তিনি সিঙ্গাপুরের একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন।

মোয়াজ্জেম হোসেন দি ফিনান্সিয়াল পত্রিকার সম্পাদক ছাড়াও বাংলাদেশ অবজারভার ও ডেইলি স্টারসহ বিভিন্ন পত্রিকায় অর্থনৈতিক সাংবাদিকতার বিকাশের ক্ষেত্রে অবদান রেখে গেছেন। গত ১ আগস্ট তিনি ঢাকার একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন।

জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শোকসভায় বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও নিউজ টুডের সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন আহমদ, দৈনিক সমকালের প্রকাশক এ কে আজাদ, বিএফইউজের সাবেক সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, সাংবাদিক নেতা আবেদ খান, যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন, দৈনিক সংবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক খন্দকার মনীরুজ্জামান, সমকালের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মুস্তাফিজ শফি, মরহুম গোলাম সারওয়ারের ছেলে গোলাম শাহরিয়ার রঞ্জন ও মোয়াজ্জেম হোসেনের ছেলে ফাহিম হোসেন।

জাতীয় প্রেসক্লাবের নির্বাহী কমিটির সদস্য ও দৈনিক ভোরের কাগজ সম্পাদক শ্যামল দত্ত অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন।

সভায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সিনিয়র সদস্যরা, বিএফইউজে, ডিইউজের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দসহ মরহুম সাংবাদিক দ্বয়ের সহকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।