সাংবাদিকের কাজে বাধা দেওয়ায় ক্ষমা চাইলেন শোভন

মেহেদি মুইন মেহেদি মুইন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

প্রকাশিত: 8:24 PM, September 10, 2019 | আপডেট: 8:24:PM, September 10, 2019
ছবি: টিবিটি

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মধুর ক্যান্টিনে দুই ছাত্রলীগ নেতার মারামারি সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে ছাত্রলীগ কর্মীদের বাধার শিকার হন সাংবাদিক নূর হোসেন ইমন। এই ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন।

আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় টিএসসিতে সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি রায়হানুল ইসলাম আবির ও সাধারণ সম্পাদক মাহদী আল মুহতাসিমসহ সাংবাদিক সমিতির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, আজকের দুপুরের ঘটনায় আমি লজ্জিত এবং এর জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করছি। ভবিষ্যতে ছাত্রলীগের কোন নেতা-কর্মী যদি সাংবাদিকদের পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে কোন ধরনের বাধা প্রদান করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে হুঁশিয়ারি প্রদান করেন তিনি।

ঘটনার সাথে জড়িত ছাত্রলীগ সহ-সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ক্ষমা প্রার্থনা করে বলেন, এটা দুঃখজনক, আমি আসলে বুঝতে পারিনি। আমার দুই বন্ধুর মধ্যে মারামারি হওয়ার কারণে আমরা খুব ব্যস্ত ছিলাম। এ কারণে হুট করে কি হয়েছে আমি বুঝতে পারিনি। এ ঘটনার জন্য আমি ক্ষমাপ্রার্থী । আগামীতে এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটবে না।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে ব্যক্তিগত অন্তর্দ্বন্দ্ব প্রকাশ করতে গিয়ে বিবাদে জড়িয়ে পড়েন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি শাহরিয়ার কবির বিদ্যুৎ ও তৌহিদুল ইসলাম চৌধুরী জহির তাদের মারামারি সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে নূর হোসেনের মুঠোফোন কেড়ে নিয়ে সংবাদের ভিডিও ডিলিট করে দেওয়া হয় এবং তাকে রেজওয়ানুল হক চৌধুরীর গাড়িতে তুলে নেওয়া হয়। নূর হোসেন ইমন দৈনিক ইনক্লাবের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সদস্য।