সাকিবকে নিয়ে ধৈর্য ধরতে বললেন কোচ ডমিঙ্গো

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:০৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০২০ | আপডেট: ৮:০৫:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০২০
ছবি: সংগৃহীত

আর মাত্র একটি সপ্তাহ। উঠে যাচ্ছে সাকিব আল হাসানকে দেওয়া আইসিসির নিষেধাজ্ঞা। সতীর্থ, কোচ, নির্বাচক, ক্রিকেট প্রশাসন থেকে শুরু থেকে দেশের কোটি কোটি ভক্ত আছেন তার মাঠে ফেরার অপেক্ষায়। দীর্ঘ এক বছর পর আবার খেলতে নেমেই যে সাকিব তাক লাগিয়ে দেবেন, তা অবশ্য প্রত্যাশা করছেন না রাসেল ডমিঙ্গো।

বাংলাদেশ জাতীয় দলের কোচ সাকিবকে নিয়ে ধৈর্য ধরতে বললেন। জাতীয় দলে ফের প্রবেশের আগে এই অলরাউন্ডারের পর্যাপ্ত অনুশীলনের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করছেন প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।

বৃহস্পতিবার ভার্চুয়াল এক সংবাদ সম্মেলনে কোচ বললেন, বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডারের জন্যও লম্বা বিরতি শেষে ফেরার পর কাজটা খুব কঠিন। তিনি বলেন, ‘দেখুন, কালকেই ওর সঙ্গে কথা হয়েছে আমার। ফিটনেস নিয়ে কঠোর পরিশ্রম করছে। আপাতত দেশের বাইরে রয়েছে। অন্য সবার মতো সাকিবেরও ফেরার পর মানিয়ে নিতে সময় লাগবে। যদি আশা করে থাকেন ফেরার পর সরাসরিই বিশাল কোনো মিরাকল সে করে ফেলবে…, তাকে নিয়ে ধৈর্য ধরতে হবে।’

বাস্তবতা মনে করিয়ে দিলেন ডমিঙ্গো। অনুশীলন আর ম্যাচের মধ্যে যে পার্থক্য আছে সেটা জানিয়ে রাখলেন। বাংলাদেশ কোচ বলেন, ‘অনুশীলনে থ্রো ডাউন, বোলিং মেশিনে খেলা আর ১৪০ কিলোমিটারের গতির বল মোকাবিলা করার মধ্যে অনেক পার্থক্য আছে। পায়ের নিচে মাটি খুঁজে নিতে হবে ও আত্মবিশ্বাস ফিরে পেতে হবে তাকে। আমরা জানি ও কোয়ালিটি ক্রিকেটার। আশা করছি বাংলাদেশের হয়ে আগামী মৌসুম দুর্দান্ত কাটবে ওর।’

সাকিব এখন রয়েছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে, পরিবারের সঙ্গে। শ্রীলঙ্কা সফরে দলে থাকবেন, এমন পরিকল্পনায় আগস্টে দেশে ফিরে বিকেএসপিতে অনুশীলন শুরু করেন। এরপর সফর স্থগিত হওয়ায় ফের ফিরে যান যুক্তরাষ্ট্রে। এখন সেখানেই ফিটনেস ট্রেনিং করছেন।

সব ঠিক থাকলে নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে দেশে ফেরার কথা রয়েছে সাকিবের। বিসিবির আয়োজনে পাঁচ দলের টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে অংশ নেবেন তিনি। জাতীয় দলে ফের ফেরার সত্যিকারের লড়াইটা শুরু হবে তখনই!