সাতক্ষীরায় মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করলো পানিবন্দী মানুষেরা

প্রকাশিত: ৮:৫৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০ | আপডেট: ৮:৫৮:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০

জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি ও পানি নিষ্কাশনের দাবীতে সাতক্ষীরা সদরের ৪টি ইউনিয়নের পানিবন্দী মানুষের অবস্থান কর্মসূচি ও মানববন্ধন হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে ভুক্তভোগি পানিবন্দী মানুষের আয়োজনে নাহিদ হাসানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মো. ইলিয়াস হোসেন, সোহাগ খান, আব্দুর রাজ্জাক ও বিকাশ দাস প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না করে প্রাণ সায়ের খাল খননের আগেই খালে বেঁড়িবাধ দেওয়ায় পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ৪টি ইউনিয়ন লাবসা, বল্লী, ঝাউডাঙ্গা ও আগরদাঁড়ি ইউনিয়নের লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় বাড়ি-ঘর, ফসলী জমি, মৎস্য ঘের, পুকুর, বিল পানিতে তলিয়ে গেছে। গবাদি পশু, হাঁস-মুরগী রাখার কোন জায়গা নেই। পানিতে তলিয়ে গেছে পাকা রাস্তা। ব্যাপক ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে ৪টি ইউনিয়নের প্রায় সকল গ্রামের মানুষের। মানবেতর জীবন যাপন করছে জলাবদ্ধতায় পানিবন্দী মানুষেরা।

শুকনা মৌসুমের আগেই প্রাণ সায়ের খাল খননের টেন্ডার হলেও তখন খাল খনন করা হয়নি। বর্ষা মৌসুমে খাল খননের নামে ৪টি ইউনিয়নের লক্ষাধিক মানুষকে ভোগান্তিতে ফেলা হয়েছে। অনতিবিলম্বে সাতক্ষীরা প্রাণ সায়ের খালের উপর দেওয়া বাঁধ কেটে দেওয়ার দাবী জানানো হয় ।

বক্তারা আরো বলেন, আমরা জেলা প্রশাসক ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছি। জলাবদ্ধতায় পানিবন্দী মানুষের কথা ভেবে দ্রুত পানি নিষ্কাশনের দাবী জানান বক্তারা।’ মানববন্ধন শেষে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। ৪টি ইউনিয়নের ৫শতাধিক পানিবন্দী মানুষ অবস্থান কর্মসূচি ও মানববন্ধনে অংশ নেয়।