সার্ফ এক্সেলের খেসারত দিচ্ছে মাইক্রোসফট এক্সেল!

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:৫১ অপরাহ্ণ, মার্চ ১২, ২০১৯ | আপডেট: ৮:৫১:অপরাহ্ণ, মার্চ ১২, ২০১৯

হোলি উৎসবকে কেন্দ্র করে সম্প্রতি একটি ভিডিও বিজ্ঞাপন প্রকাশ করে সার্ফ এক্সেল। এই বিজ্ঞাপনকে ঘিরে চলছে সমালোচনা। হিন্দুত্ববাদী উগ্রপন্থীদের দাবি, বিজ্ঞাপনটিতে মুসলমানদের নামাজের প্রতি উৎসাহ দেয়া হয়েছে। আর এই সমালোচনার ফল ভোগ করতে হচ্ছে গুগল-প্লে স্টোরে থাকা মাইক্রোসফট এক্সেলকে। অনেকে রীতিমত গালাগালি করে মাইক্রোসফটের চৌদ্দগোষ্ঠি উদ্ধার করছেন!

শুনতে অবাক হলেও ঘটনাটি ঘটেছে ভারতে। দেশটির অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা সার্ফ এক্সেলকে মাইক্রোসফট এক্সেলের সহযোগী প্রতিষ্ঠান ভেবে প্লে-স্টোরে থাকা মাইক্রোসফট এক্সেল অ্যাপটির রেটিং কমিয়ে নানা মন্তব্য করছেন।

উগ্রপন্থী রাজনৈতিক কর্মীরা নামের শেষে ‘এক্সেল’ শব্দ থাকায় ‘সার্ফ এক্সেল’ আর ‘মাইক্রোসফট এক্সেল’কে গুলিয়ে ফেলেছেন। কেউ আবার উভয় কোম্পানির স্বকীতা জেনে শুনেই মাইক্রোসফট এক্সেলকে নেগেটিভ রেটিং দিচ্ছেন!

একজন ব্যবহারকারী লিখেছেন, সার্ফের (সার্ফ এক্সেল) সঙ্গে অংশীদার হওয়ার আগ পর্যন্ত এবং ধর্মবিরোধী বিজ্ঞাপন প্রকাশের আগ পর্যন্ত আমি অ্যাপটি পছন্দ করতাম। এখন আমি যখন আমি ওয়ার্ড এক্সেলে কোনো কিছু পড়তে ধরি তখনই হিন্দুবিরোধী প্রচারণা সম্পর্কে মাথায় আসে। এই কাজ করার জন্য তোমাদের প্রতি ধিক্কার জানাই।

অপর এক ব্যবহারকারী লিখেছেন, সার্ফ এক্সেল বিজ্ঞাপনের কারণে আমি অ্যাপটিকে এক স্টার দিচ্ছি।

রহিত সিং নামে আরেকজন ব্যবহারকারী হিন্দি ভাষায় লিখেছেন, আমি জানি তুমি সার্ফ এক্সেল না। তবুও আমি অ্যাপটিকে এক স্টার দিচ্ছি কারণ এক্সেল শব্দটির প্রতি আমার ঘৃণা জন্মেছে। অনেকে সার্ফ এক্সেল বয়কটের ঘোষণা দিয়েও রিভিউ দিয়েছেন।

এদিকে কিছু ব্যবহারকারী কমেন্ট করে বোঝানোর চেষ্টা করেছেন যে এই মাইক্রোসফট এক্সেল সার্ফ এক্সেল না। আর সার্ফ এক্সেলের সঙ্গে মাইক্রোসফট এক্সেলের কোনো যোগাযোগ নেই।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া।