সীমান্ত সন্ত্রাস: পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে তলব করলো ভারত

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:১৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২১, ২০২০ | আপডেট: ৮:১৮:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২১, ২০২০

কাশ্মীরের নাগরোটার ঘটনায় পাকিস্তান হাইকমিশনের কার্যকরী প্রধানকে শনিবার ডেকে পাঠিয়েছে ভারত। নাগরোটার ঘটনার কড়া নিন্দা করে ভারত সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফে তাঁর হাতে ধরানো হল চিঠি। জম্মু-কাশ্মীরের মাটিতে জইশ-ই-মহম্মদ যেভাবে নাশকতা চালানোর পরিকল্পনা কষেছিল, আফতাব হাসান খানকে দেওয়া চিঠিতে সে বিষয়ে কড়া উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে।

এই নিয়ে নভেম্বর মাসেই দু’ দফায় পাক হাইকমিশনের কার্যকরী প্রধানকে ডেতকে পাঠাল বিদেশ মন্ত্রণালয়। সূত্রের খবর, সীমান্ত সন্ত্রাস নিয়ে আফতাব হাসান খানকে কড়া বার্তা দিয়েছে ভারত।

এদিন নয়াদিল্লির তরফ থেকে সীমান্ত সন্ত্রাস নিয়ে নিজেদের প্রতিক্রিয়া ব্যক্তের পাশাপাশি কড়া ভাষায় জানানো হয়েছে, পাকিস্তান যেন জঙ্গিদের মদত দেওয়া বন্ধ করে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

ভারতীয় বাহিনীর দাবি, বৃহস্পতিবার সকালে গোয়েন্দাদের কাছ থেকে খবর পেয়ে নাগরোটার কাছে বান টোল প্লাজায় একটি ট্রাক থামান জওয়ানরা। সঙ্গে সঙ্গেই ট্রাকের ভিতর থেকে গুলি চালানো শুরু হয়। নিরাপত্তা বাহিনীও পাল্টা গুলি চালায়। শ্রীনগর ন্যাশনাল হাইওয়েতে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে তিন ঘণ্টা ধরে সন্দেহভাজন জঙ্গিদের বন্দুকযুদ্ধ চলে। পরে চার সন্দেহভাজন নিহত হয়। ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর দাবি, নিহতরা জঙ্গি সংগঠন জয়েশ ই মোহাম্মদের সদস্য। তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধার হওয়া জিনিস-পত্র বিশ্লেষণের ভিত্তিতে গোয়েন্দাদের দাবি জঙ্গিরা পাকিস্তান থেকে এসেছে। নিহত জঙ্গিদের থেকে উদ্ধার হওয়া ডিজিট্যাল রেডিওটি ‘মাইক্রো ইলেকট্রনিক্স’ নামক এক পাকিস্তানি কোম্পানির। যে স্মার্ট ফোনটি উদ্ধার হয়েছে, তা পাকিস্তানের সংস্থা ‘কিউ মোবাইলের’। নিহত জঙ্গিদের জুতাও পাকিস্তানের তৈরি।

এমন অবস্থায় ক্ষোভ জানিয়ে শনিবার পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে ভারত। সীমান্তে সন্ত্রাস নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করে ভারত দাবি করে, পাকিস্তানকে জঙ্গিদের মদত দেওয়া বন্ধ করতে হবে। দেশের নিরাপত্তাকে সুরক্ষিত রাখতে যা যা পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন ভারত তাই নেবে বলেও সাফ জানিয়ে দিয়েছে নয়াদিল্লি।