সুখী হতে চাইলে বউয়ের সঙ্গে মন খুলে ঝগড়া করুন!

প্রকাশিত: ৯:৪৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০১৯ | আপডেট: ৯:৪৩:অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০১৯

পাঁচ কারণে সম্পর্কের মধ্যে তর্ক-বিতর্ক হওয়া অত্যন্ত জরুরি। তাই অন্তত একবার হলেও এ কারণেই ঝগড়া করুন।

যদি কোনো ক্ষোভ না থাকে তাহলে ঝগড়ার সম্পর্ক স্থায়ী করে
অধিকাংশ প্রেমিক যুগল একে অপরের কাছে ক্ষমা চায় এবং আরো বেশি ঘনিষ্ঠ হয়। যদি ঝগড়া যুক্তিসঙ্গত হয় তবে এতে ঘনিষ্ঠতা আরো বাড়ে। ঝগড়ার কারণে সম্পর্কের গভীরতা বাড়ে
পারস্পরিক সম্মান বজায় রেখে যুক্তিসঙ্গত তর্ক করলে সম্পর্কের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা আরো বাড়ে।

ঝগড়া বিশ্বাস বাড়ায়
পারস্পরিক আলোচনার মাধ্যমে নিজেদের চিন্তাধারা একে অপরের কাছে খোলাখুলি বললে বিশ্বাস বাড়ে। অহেতুক তর্ক বিতর্ক থেকে এটা পরস্পরকে দূরে রাখে। অহেতুক তর্ক বিতর্ক বিচ্ছেদের দিকে নিয়ে যায়।

আপনি ভালো অনুভব করেন
ঝগড়ার সময় নিজের মতামত জানালে মন হাল্কা হয়ে যায়। তবে খেয়াল রাখবেন মতামত জানানোর ক্ষেত্রে রুক্ষ্ণ হওয়া যাবে না। সম্পর্ক অনেকটা রোলার কোস্টারের মতো। এতে উত্থান পতন থাকবেই।

আপনার চরিত্রকে উন্নত করে
বিরোধের কারণে আপনার ধৈর্য, সঙ্গীর প্রতি যত্ন এবং ভালোবাসা বাড়ায়। আরেকজনের ভুলের সঙ্গে মানিয়ে নিতেও সাহায্য করে। কিন্তু খেয়াল রাখবেন এ ঝগড়া যেন নিয়মিত না হয়। মাঝে মাঝে ঝগড়া করাটা ভালো।