‘সুটকেস ভর্তি নোংরা কাপড় নিয়ে হোয়াইট হাউজে আসেন নেতানিয়াহু’

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭:২৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০ | আপডেট: ৭:২৮:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০
ট্রাম্পের ‘ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি’ নিয়ে উৎফুল্ল নেতানিয়াহু। ছবি: সংগৃহীত

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু অদ্ভুত এক খবরের কারণে ফের শিরোনাম হয়েছেন। মার্কিন গণমাধ্যম জানিয়েছে, ওয়াশিংটন ডিসিতে হোয়াইট হাউজের গেস্টহাউজে নোংরা কাপড় নিয়ে আসেন নেতানিয়াহু, যাতে বিনামূল্যে তা পরিষ্কার করা যায়। কেননা গেস্টহাউজের কর্মীরা বিনামূল্যে কূটনীতিকের নোংরা কাপড় পরিষ্কার করে দেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মার্কিন কর্মকর্তা ওয়াশিংটন পোস্টকে বলেছেন, একমাত্র নেতানিয়াহু দম্পতিই নোংরা কাপড়ে সুটকেসে ভরে নিয়ে আসেন, যাতে সেগুলো পরিষ্কার করা যায়। তাদের কয়েকটি সফরের পর এটা স্পষ্ট হয়ে যায় যে, তারা ইচ্ছা করেই নোংরা কাপড় নিয়ে আসছেন।

আরেকজন মার্কিন কর্মকর্তা বলেছেন, চলতি সফরে নোংরা কাপড়ের সুটকেস আনেননি নেতানিয়াহু দম্পতি। ওবামা প্রশাসনের সময় থেকে কর্মরত ওই কর্মকর্তা বলেন, আগের সফরগুলোতে তারা নোংরা কাপড়ে ভরা সুটকেস নিয়ে আসতেন।

এদিকে ওয়াশিংটনে ইসরায়েলি দূতাবাসের একজন মুখপাত্র বলেছেন, সম্প্রতি দুটি আরব দেশের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকের যে ঐতিহাসিক চুক্তি করেছে ইসরায়েল তা থেকে নজর সরাতে নেতানিয়াহুর লন্ড্রি নিয়ে খবর প্রকাশ করা হয়েছে। এমনকি চলতি সফরে নেতানিয়াহুর লন্ড্রির একটি তালিকাও তুলে ধরেন তিনি।

ওই মুখপাত্র বলেন, এই সফরে কোনও কাপড় ড্রাই ক্লিন করা হয়নি। পাবলিক মিটিংয়ের জন্য দুটি শার্ট লন্ড্রি করা হয়। পাবলিক মিটিংয়ের জন্য প্রধানমন্ত্রীর সুট এবং তার স্ত্রীর ড্রেস ইস্ত্রি করা হয়। এছাড়া ইসরায়েল থেকে ওয়াশিংটনে ১২ ঘণ্টার ফ্লাইটের সময় প্রধানমন্ত্রী যে পোশাক পরেছিলেন তা লন্ড্রি করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, এর আগে তথ্য অধিকার আইনের অধীনে নেতানিয়াহুর অফিস ও ইসরায়েলের অ্যাটর্নি জেনারেল প্রধানমন্ত্রী লন্ড্রি বিল জানতে চায়। কিন্তু ওই সময় নিজের অফিস ও অ্যাটর্নি জেনারেলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছিলেন নেতানিয়াহু। এমনকি বিচারক ওই সময় নেতানিয়াহুর পক্ষে থাকারই সিদ্ধান্ত নেয়।