সুনামগঞ্জে ধর্ষণের শিকার প্রথম শ্রেণীর স্কুলছাত্রী, ধর্ষক গ্রেফতার

প্রকাশিত: ৬:৩৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৯ | আপডেট: ৬:৩৬:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৯

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে খেলার ছলে ধর্ষণের শিকার প্রথম শ্রেণীতে পড়ুয়া ৭ বছর বয়সী এক স্কুলছাত্রী। বৃহস্পতিবার রাতে ভিকটিমকে মুমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধারের পর চিকিৎসার জন্য সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।’

গ্রেফতার করা হয়েছে ধর্ষক বখাটে কিশোর সাইফুল ইসলাম(১৪) কে। সাইফুল উপজেলার বাদাঘাট (উওর) ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী পুরানলাউড় গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে।

পুলিশ ও ভিকটিমের পারিবারীক সুত্রে জানা যায়, উপজেলার সীমান্তবর্তী পুরানলাউড় গ্রামের বখাটে সাইফুল ইসলাম বৃহস্পতিবার বিকেলে খেলারছলে গ্রামের প্রতিবেশ স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক ক্ষুদে স্কুল ছাত্রীকে ডেকে নিয়ে যায়।,

এদিকে খেলারছলে সন্ধা গড়িয়ে এলে বখাটে কিশোর ওই ছাত্রীকে বাড়ির পেছনে ফের ডেকে নিয়ে গিয়ে ঝোঁপের মধ্যে ফেলে জোরপুর্বক ধর্ষণ করে।

এক পর্যায়ে স্কুলছাত্রী অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়লে বখাটে সাইফুল ঝোঁপের মধ্যে তাকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

পরিবারের লোকজন সন্ধার পর ওই স্কুলছাত্রীর সন্ধানে বের হলে গ্রামের ঝোপের মধ্য থেকে তাকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় উদ্ধার করে।

স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসায় জ্ঞান ফিরলে ওই ছাত্রী গ্রামবাসী ও পরিবারের লোকজনের নিকট সাইফুল কতৃক ধর্ষিত হওয়ার কথা জানায়।

তাহিরপুর থানার ওসি শ্রী নন্দন কান্তি ধর জানান, এ ব্যাপারে ভিকটিমের পিতা মামলা দায়েরের পর শুক্রবার সকালেই আসামীকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আসামী অপ্রাপ্ত বয়স্ক কিশোর হওয়ায় পরবর্তীতে আদালত তাকে ঢাকাস্থ গাজীপুরের কিশোর সংশোধনাগারে পাঠানোর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন।’