‘সুনামগঞ্জ জেলা থাকবে ‘মাদক ও দুর্নীতিমুক্ত’

প্রকাশিত: ৫:৪৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০১৯ | আপডেট: ৫:৪৭:অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০১৯
ছবি: টিবিটি

বখাটেপনা মধ্যরাতে আড্ডাবাজি রুখতে সুনামগঞ্জে রাত ৯টার মধ্যে শহরের সব চায়ের দোকান বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন জেলার নবাগত পুলিশ সুপার (এসপি) মো. মিজানুর রহমান।

শনিবার দুপুরে নিজ কার্যালয়ে সুনামগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটি ও জেলায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ নির্দেশনার কথা বলেন।

তিনি বলেন, এখানে দেখেছি শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে দিন থেকে শুরু করে রাত ১২টা পর্যন্ত ছেলেরা আড্ডা দেয়। তাছাড়া ওই সময় অনেক ছেলে বখাটেপনা করে।

আমি সংশ্লিষ্ট সবাইকে জানিয়ে দিতে চাই, সুনামগঞ্জে রাত ৯টার মধ্যে সব চায়ের দোকান বন্ধ করতে হবে। শুধু বাসস্ট্যান্ড ও লোক সমাগম এলাকা বাদ দিয়ে বাকি ওলিতে-গলিতে যে চায়ের দোকান বা টং রয়েছে সেগুলো বন্ধ করে দিতে হবে। রাত ৯টার পর দলবদ্ধ আড্ডা মেনে নেয়া হবে না।

তিনি আরো বলেন,‘আমি সুনামগঞ্জ আসার পর দেখেছি এখানে চাঁদাবাজি, জুয়া খেলা, উঠতি ছেলেদের রাতভর আড্ডা ইত্যাদি হচ্ছে। কিন্তু আমি এখন পরিষ্কার বলে দিতে চাই- আমার জেলায় এসব হবে না। আমি মাদক সেবন, মাদক ব্যবসা, চোরাচালান বাণিজ্য, চাঁদাবাজি বা জুয়া খেলা কিংবা কোনো রকম অপরাধমূলক কাজ মেনে নেব না। সুনামগঞ্জ জেলা থাকবে মাদক ও দুর্নীতিমুক্ত।

পুলিশ সুপার সাংবাদিকদের বলেন, আইনের ঊর্ধ্বে আমরা কেউ না। সাংবাদিক ভাইদের বলবো, আপনারা গাড়িতে নম্বর প্লেট ও ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং হেলমেট ব্যবহার করবেন। আপনারা যদি আইন মেনে চলেন তাহলে আপনাদের দেখে আরও অনেকে শিখবে। আমরা চাই সাংবাদিকদের সঙ্গে একত্রিত হয়ে কাজ করতে।

প্রসঙ্গত, নবাগত পুলিশ সুপার হিসাবে মিজানুর রহমান সুনামগঞ্জে যোগদান করার পর থেকে ছিমিয়ে থাকা মাদক ও চোরাচালান, আমদানি নিষিদ্ধ ভারতীয় নাসির বিড়ির শতশত দোকানপাঠের পসরা, বিভিন্ন নৌ পথে চাঁদাবাজি প্রতিরোধে পুলিশী অভিযান জেলা শহর ছাড়াও পার্শ্ববর্তী উপজেলাগুলোতে বেশ জোরালো হওয়ার পাশাপাশি দ্বীর্ঘদিন ধরে চলে আসা সীমান্তনদী জাদুকাটা, ধোপাজান চলতি নদীতে সেইভ ড্রেজারে বালু পাথর লুটের মত পরিবেশধ্বংসী কাজ আপাতত বন্ধ হয়ে গেছে।

মতবিনিময়কালে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হায়তুন নবী, সুনামগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটি নেতৃবৃন্ধ ও জেলায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকগণ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।