সেই মসজিদের হামলাকারীর ‘নতুন অভিসন্ধির’ কথা জানালেন: এরদোয়ান

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:৪৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৮, ২০১৯ | আপডেট: ৬:৪৪:অপরাহ্ণ, মার্চ ১৮, ২০১৯
ছবি: সংগৃহীত

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলাকারী সন্ত্রাসীর নতুন অভিসন্ধির কথা জানিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান। তিনি বলেন, ব্রেন্টন ট্যারান্ট তুরস্কের মুসলমানদের উপরও হামলা করতে চেয়েছিল।

এরদোয়ান শনিবার একটি নির্বাচনী র‍্যালিতে বড় একটি স্ক্রিনে ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলার ভিডিও ফুটেজ জনগণকে দেখান এবং বলেন ওই হামলাকারী তুর্কি মুসলমানদের বিরুদ্ধেও হুমকি দিয়েছিল।

মুসলমান এবং খ্রীষ্টানদের মধ্যে সংঘটিত ধর্মীয় যুদ্ধ ক্রুসেডের ঘটনার কথা উল্লেখ করে তুরস্কের প্রেসিদেন্ট বলেন, ‘আমরা চাই না ক্রস এবং ক্রিসেন্টের মধ্যে আবারো কোন সংঘাতের সৃষ্টি হোক’।

তিনি উল্লেখ করেন, তুরস্কের ইউরোপিয়ান অংশ থেকে মুসলমানদের নিশ্চিহ্ন করার হুমকি দিয়েছিল নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলাকারী।

তিনি জানান, ব্রেন্টন ট্যারান্ট দুইবার তুরস্কে এসেছিল। সে তুরস্কের জনগণকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিল ইউরোপে তুর্কি মুসলমানদের কোন স্থান নেই। তিনি উল্লেখ করেন, হামলাকারীর তুরস্কে আসার বিষয়টি তদন্ত করার জন্য তুরস্কের তদন্ত কর্মকর্তারা নিউজিল্যান্ডে গেছেন।

উল্লেখ্য, তুরস্ক ইউরোপ এবং এশিয়া মহাদেশের মধ্যে বিভক্ত একটি দেশ। এর এশিয়ান অংশে রয়েছে আনাতোলিয়া। এই অঞ্চল এশিয়া মাইনর হিসেবেও পরিচিত। বৃহত্তম তুর্কি শহর ইস্তাম্বুলের একটি অংশ এশিয়া এবং অপর অংশ ইউরোপে পড়েছে।

এরদোয়ান বলেন, ‘সন্ত্রাসী ওই ব্যক্তি যার কারণে আমাদের ৪৯ জন ভাই এবং বোন শহীদ হয়েছেন। সে বলে আমরা আনাতোলিয়ায় থাকতে পারবো কিন্তু ইউরোপীয় অংশে আসতে পারবো না। এটা বলার তুমি কে?’

এদিকে তুরস্কের নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানায়, ২০১৬ সালে ট্যারান্ট দুইবার তুরস্কে আসে। মার্চে সে এক সপ্তাহ ছিল এবং সেপ্টেম্বরে এক মাসের বেশি ছিল। তুর্কি কর্তৃপক্ষ হোটেল রেকর্ড থেকে শুরু করে ক্যামেরা ফুটেজ সবকিছু খতিয়ে দেখছে। তার তুরস্কে আসার কারণ জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।