সৌদি আরবের আতিথেয়তায় মুগ্ধ আমন্ত্রিত হজযাত্রীরা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:২৮ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৬, ২০১৮ | আপডেট: ৫:২৮:পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৬, ২০১৮

টিবিটি আন্তর্জাতিক: সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদের আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে প্রথম ব্যাচ হিসেবে ইতোমধ্যেই মক্কায় গেছেন ১ হাজার হজযাত্রী। বাদশাহ সালমানের অতিথিদের আতিথেয়তা করা হচ্ছে সর্বোচ্চ সতর্কতার সাথে। এমন  আন্তরিকতাপূর্ণ আতিথেয়তায় মুগ্ধ আমন্ত্রিত হজযাত্রীরা।

সৌদি আরবে পৌঁছার পর ধর্মমন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে তাদের সাদর সম্ভাষণ জানিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তাদের পবিত্র কাবা শরীফে নিয়ে যাওয়া হয়। এছাড়া আরো গুরুত্বপূর্ণ স্থানে তাদের নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। সৌদি বাদশাহর পক্ষ থেকে তাদের আপ্যায়নেও কোনো ত্রুটি রাখা হচ্ছে না।

গত সোমবার পর্যন্ত ১৪ লাখ ৮৬ হাজার নয়শ ৫৮ জন হজযাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন। তার মধ্যে সাত লাখ ৯৭ হাজার সাতশ ৯৪ জন হজযাত্রী মদীনায় গেছেন। হজযাত্রীদের বিভিন্ন বিষয়ে সতর্ক করে দেওয়ার জন্য আরবি, ইংরেজি, ফ্রেন্স, রাশিয়ান, চীনা এবং ফার্সি ভাষায় বার্তা দেওয়া শুরু করা হয়েছে।

সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ বলেছেন, সারা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে সৌদি আরবে মহান আল্লাহ তায়ালার পবিত্র ঘরে হজ করতে আসা প্রত্যেক হজযাত্রীদের স্বাগত জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, মহান আল্লাহর কাছে আমি প্রার্থনা করি, তিনি যেন সকলের হজ কবুল করে নেন। এছাড়া হজযাত্রীদেরকে তিনি যেন সঠিকভাবে সকল নিয়মকানুন পালনের তৌফিক দান করেন।

জানা গেছে, এক বিবৃতির মাধ্যমে আরবি, ইংরেজি, রুশ, চাইনিজ, ফার্সি এবং উর্দু ভাষায় হজযাত্রীদের উদ্দেশ্যে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি। শহীদদের পরিবারকে হজ পালনের আমন্ত্রণ সৌদি বাদশাহর

মিডলইস্ট মনিটর, সৌদি প্রেস অ্যাজেন্সি ও সৌদি গেজেট, ১৩ আগস্ট ২০১৮

ফিলিস্তিনের স্বাধীনতা আন্দোলনে প্রাণ হারানো ফিলিস্তিনিদের পরিবারের এক হাজার সদস্যকে হ্জ পালনের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ।

সৌদি আরবের ইসলাম ধর্মবিষয়ক মন্ত্রী গেনারেল শেখ ড. আবদুল লতিফ বিন আব্দুলাজিজ আল শেখ জানান, ফিলিস্তিনি ইস্যুতে সৌদি বাদশাহর অব্যাহত সমর্থন ও ফিলিস্তিনি মানুষদের মহান আত্মত্যাগ স্মরণের অংশ হিসেবে এই আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। বৈধ অধিকার ফিরে পেতে ফিলিস্তিনি জনগণের দীর্ঘ সংগ্রাম সব সময়েই সমর্থন আর প্রশংসার দাবি রাখে।

শহীদ ফিলিস্তিনিদের পরিবারের সদস্য ছাড়াও এবছর ইয়েমেনে নিহতদের মধ্যে দেড় হাজার ইয়েমেনি ও সুদানি নাগরিকের পরিবারের সদস্যদেরও  হ্জ পালনের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। সৌদি বাদশাহর জারি করা ডিক্রি অনুযায়ী সৌদি সরকারের অর্থায়নে হজ পালন করবেন তারা।

মিসরের পুলিশ এবং সশস্ত্র বাহিনীগুলোর শহীদদের পরিবারের সদস্যদের মধ্য থেকে এক হাজার জনকে চলতি বছর হজ পালনের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন সৌদি আরবের বাদশাহ। বাদশাহ সালমানের অতিথি হিসেবে তারা সৌদি এসে হজ পালন করবেন। দেশটির ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় মিসর থেকে আসা এক হাজার হজযাত্রীর দেখভাল করবে বলে জানা গেছে।

এছাড়া এশিয়া, আফ্রিকা এবং ইউরোপের দেশগুলো থেকেও বাদশাহ সালমানের অতিথি আসার কথা রয়েছে। গত মাসেই বাদশাহ নির্দেশ দিয়েছেন, ইয়েমেনের সেনাবাহিনীসহ আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী অন্যান্য বাহিনীর শহীদদের পরিবারের সদস্যদের মধ্যে দেড় হাজার জনকে হজ পালনের আমন্ত্রণ জানানোর জন্য।

গত ২২ বছর ধরে হাজার হাজার হজযাত্রী সৌদি বাদশাহর আমন্ত্রণে হজ পালন করেছেন। সৌদি কর্তৃপক্ষ মনে করে, যেসব পরিবারের সদস্য দেশের জন্য প্রাণ দিয়েছেন, জীবিত থাকলে তাদের বদৌলতে পরিবারের সদস্যরা হজ পালন করতে পারতো। সেই সুবিধা দেওয়ার চেষ্টা করছে সৌদি প্রশাসন।