স্ত্রীর ভুলে ক্যানসারের ওষুধ খেয়ে ফাঁসলেন শেহজাদ

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:৪৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১১, ২০১৮ | আপডেট: ৬:৪৭:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১১, ২০১৮
স্ত্রী ও মায়ের সঙ্গে আহমেদ শেহজাদ

পাকিস্তান ক্রিকেটে ডোপ কেলেঙ্কারি যদিও নতুন কিছু না। আগেও এমন কাণ্ডে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন অনেকে। সবশেষ সংযোজন ওপেনার আহমেদ শেহজাদ।  ডান-হাতি এই ওপেনার আগে ডোপ টেস্টে পজিটিভ রেজাল্ট আসায় ফেঁসেছিলেন লেগস্পিনার ইয়াসির শাহ। পরে জানা যায় ইয়াসির শাহ ভুলে তার স্ত্রীর ঔষধ খেয়ে ফেলেছিলেন। যার কারণেই হয়েছিল ঝামেলা।

এবার একই দশা আহমেদ শেহজাদেরও। তিনিও নাকি স্ত্রীর ভুলে মায়ের ক্যানসারের ওষুধ খেয়ে ফেলেছিলেন। তাতেই ধরা পড়েছেন ২৬ বছর বয়সী এই তারকা। এরইমধ্যে ডোপ টেস্ট পজিটিভ হওয়ায় চার মাসের নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন সব রকম ক্রিকেট থেকে। আগামী নভেম্বরের ১০ তারিখে শেষ হবে শাস্তির মেয়াদকাল। ইতোমধ্যে তিন মাসের শাস্তিও ভোগ করে ফেলেছেন শেহজাদ।

ক্রিকবাজ জানায়, চলতি বছরের মে মাসের তিন তারিখ ঘরোয়া লিগের বেলুচিস্তানের হয়ে ম্যাচ খেলার আগে নিজের নিয়মিত ওষুধের জন্য স্ত্রীকে বলেন। তখন শেহজাদের স্ত্রী ভুলবশত তার মায়ের ক্যানসারের ওষুধ খাইয়ে দেন তাকে। এরপর ম্যাচের আগে তার শারীরিক অবস্থার সন্দেহজনক মনে হলে ডোপ টেস্ট করায় টুর্নামেন্ট কমিটি। সেখানে রেজাল্ট আসে পজিটিভ।

ডোপ টেস্টের রেজাল্ট পজিটিভ আসায় শাস্তি ভোগ করলেও শেহজাদ নিজেকে নির্দোষ প্রমাণের জন্য তার মায়ের প্রেসক্রিপশন নিয়ে আসেন। এছাড়া জাতীয় দলের কোচ মিকি আর্থারসহ কয়েকজনের কাছ থেকে নিজের চারিত্রিক সনদ নিয়ে জমা দিয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের কাছে।