স্বপ্নে যখন আঘাত লেগেছে,তখন থেকে আর পরিসংখ্যান-টরিসংখ্যান নিয়ে চলি না: মাশরাফি

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭:২৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৩১, ২০১৯ | আপডেট: ৭:২৮:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৩১, ২০১৯
মাশরাফি বিন মর্তুজা ও তার স্ত্রী সুমনা হক সুমি। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমের জেলা নড়াইল-এ মাশরাফির জন্ম। ছোটবেলা থেকেই তিনি বাঁধাধরা পড়াশোনার পরিবর্তে ফুটবল আর ব্যাডমিন্টন খেলতেই বেশি পছন্দ করতেন, আর মাঝে মধ্যে চিত্রা নদীতে সাঁতার কাটা।

তারুণ্যের শুরুতে ক্রিকেটের প্রতি তার আগ্রহ জন্মে, বিশেষত ব্যাটিংয়ে; যদিও এখন বোলার হিসেবেই তিনি বেশি খ্যাত, যেজন্যে তাকে ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’ নামেও অভিহিত করা হয়।

বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক। ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স নিয়ে তেমন উচ্ছ্বসিত হন না তিনি। তিনি ২০০ ওয়ানডে খেলে উইকেট নিয়েছে ২৫০-এর অধিক। তবে তিনি এসব পরিসংখ্যানকে গুরুত্ব না দিলে ক্যারিয়ার শেষে বিষয়টি হয়তো তৃপ্তি দেবে বলে মনে করেন মাশরাফি।

বিষয়টি নিয়ে সম্প্রতি গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে মাশরাফি বলেন, ‘আমি আসলে একটু অন্যরকম। এমন পরিসংখ্যান তো ভালো লাগারই কথা৷ ক্যারিয়ার শেষে না, এখনই ভালো লাগার কথা। কিন্তু জানি না, আমি তা কেন পারি না৷ হয়তোবা খেলার মধ্যে আছি বলে৷ যখন খেলা ছেড়ে দেবো, তখন হয়তো এ ব্যাপারগুলো মাথার মধ্যে বেশি করে আসবে।’

পরিসংখ্যান মাথায় রেখেই ক্যারিয়ার শুরু করলেও ইনজুরির কারণে সেই পরিসংখ্যানে ধাক্কা খেয়ে হতাশ হয়েছিলেন।

পরিসংখ্যান মাথায় রেখে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন জানিয়ে মাশরাফি বলেন, সত্যি যে, পরিসংখ্যান মাথায় রেখে আমি ক্যারিয়ার শুরু করেছিলাম। যখন প্রথম টেস্টে চার উইকেট পাই, তখন স্বপ্ন হয়েছিল টেস্টে তিনশ’ উইকেট নেবোই।

ওই দিনই দলের সঙ্গে সোনারগাঁ হোটেলে ফিরে ডায়েরিতে তা লিখে রেখেছিলাম, তারিখ দিয়ে৷ ওয়ানডেতে কোনো টার্গেট ছিল না, কিন্তু লক্ষ্য ছিল টেস্টে তিনশ’ উইকেট নেবো।

তখন আমার বয়স ১৭-১৮ বছর (প্রায় ১৮ বছর আগে)৷ ছোটবেলার স্বপ্ন তৈরি হয়েছে টেস্ট ক্রিকেট দিয়ে। তো ইনজুরির কারণে ওই টেস্টের স্বপ্নে যখন আঘাত লেগেছে, এরপর আর পরিসংখ্যান-টরিসংখ্যান নিয়ে চলি না।’

ওয়ানডে অধিনায়ক বলেন, ‘স্রেফ খেলি, উপভোগ করি আর বাংলাদেশ ক্রিকেটকে প্রতিনিধিত্ব করি৷ এই প্রতিনিধিত্ব করার চেয়ে বড় অর্জন আমার জীবনে আর কিছু নেই৷ এর চেয়ে বড় কিছু আসবে বলেও মনে করি না৷ প্রতি ম্যাচে নামি এই ভেবে যে, খেলার কোনো ক্ষেত্রে আমার যেন একটু অবদান থাকে৷’
Add Image