হজ নিয়ে সৌদি আরবের সিদ্ধান্ত স্বৈরশাসকের মতো

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:৪৪ অপরাহ্ণ, জুন ২৮, ২০২০ | আপডেট: ৯:৪৪:অপরাহ্ণ, জুন ২৮, ২০২০

একক সিদ্ধান্তে অন্য দেশগুলোর ধর্মপ্রাণ মুসলিমদের জন্য হজ বাতিলের সিদ্ধান্ত সৌদি আরবের স্বৈরতান্ত্রিক মনোভাবের বহিঃপ্রকাশ বলে জানিয়েছে ভারতের একটি ইসলামি ধর্মীয় গ্রুপ। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে সৌদি আরব এ বছর ইন্ডিয়াসহ বিশ্বের অন্য দেশগুলোর মুসল্লিদের জন্য হজ পালন নিষিদ্ধ করেছে। করোনা মহামারির কারণে এ বছর কেবলমাত্র সৌদি আরবের নির্দিষ্ট সংখ্যক নাগরিকরা হজ পালন করতে পারবেন।

রাজা একাডেমি নামের ওই গ্রুপের মুখপাত্র সৈয়দ নূরী বলেন, ‘স্বৈরশাসকের মতো এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সৌদি সরকারের উচিত ছিল মুসলিম বিশ্বের আলেমদের পরামর্শ নেওয়া।’

মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে এবার সীমিত পরিসরে অল্পসংখ্যক মানুষের অংশগ্রহণে হজের আয়োজন করা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব। যারা এরই মধ্যে দেশটিতে অবস্থান করছেন শুধু এমন মানুষরাই এবারের হজে অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

প্রতিবছর বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রায় ২৫ লাখ মুসল্লি হজে অংশ নেন। কিন্তু এবার মহামারি করোনার কারণে মানুষজন এক দেশ থেকে অন্য দেশে ভ্রমণ করতে পারছেন না। এছাড়া সাম্প্রতিক দিনগুলোতে করোনার সংক্রমণ আশঙ্কাজনক হারে বেড়েই চলেছে।

এবারের হজ স্বাভাবিকভাবে আয়োজন করতে না পারায় সৌদি আরবের রাজস্ব আয়ে বিশাল ভাটা পড়বে। এছাড়া ২০১৫ সালে পদদলিত হয়ে দুই সহস্রাধিক হাজির মৃত্যু ছাড়াও গত কয়েক বছরে কয়েকটি দুর্ঘটনার ফলে হজ আয়োজন নিয়ে সৌদি কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগও আছে।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া।