হবিগঞ্জে গুজব তাড়াতে লবণ বাজারে প্রশাসন

প্রকাশিত: ৬:৫৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৯, ২০১৯ | আপডেট: ৬:৫৮:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৯, ২০১৯
ছবি: টিবিটি

সোমবার দিবাগত রাতে হঠাৎ হবিগঞ্জ জেলাজুড়ে লবণের দাম বেড়ে যাবে গুজব ছড়িয়ে পড়েছিল। এর পর থেকে দেদারছে লবণ বিক্রি হয়। এক ঘন্টায় কয়েক লাখ টাকার লবণ বিক্রি হয়ে যায়।

এ খবর জানার প্রশাসন দাবী করেছে লবণের কৃত্রিম সংকট তৈরীর চেষ্টা করেছিল অসাধু কিছু ব্যবসায়ী। তাই রাত থেকেই জেলা ও উপজেলা প্রশাসন লবণ বাজারে তদারকি করছেন।

এ ব্যাপারে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমী আক্তার বলেন, শায়েস্তাগঞ্জ ড্রাইভার বাজার, সুতাং বাজারসহ বিভিন্ন হাট-বাজারে সরেজিমন গিয়ে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের সাথে কথা বলেছি। লবণের দাম বাড়ার কোন প্রমাণ পাওয়া যায়নি। প্যাকেটের গায়ের মূল্য অনুয়ায়ী লবণ বিক্রি হচ্ছে।

লবণ ক্রেতা সুমন মিয়া ড্রাইভার বাজার থেকে দুই কেজি লবণ ৫০ টাকায় ক্রয় করেছেন। ক্রেতারা স্বাভাবিকভাবে লবণ ক্রয় করছেন। এখানে গুজব ছড়িয়ে লাভ হবে না। আমরা প্রশাসন মাঠে আছি।

ইউএনও সুমী আক্তারের ন্যায় জেলার স্থানে স্থানে প্রশাসন বাজার তদারকি করছে।

সূত্র জানায়, সোমবার দিবাগত রাতে গুজব ছড়ানোর পর ক্রেতাদের ধারণা পেঁয়াজের ন্যায় লবণের দাম বেড়ে যেতে পারে। তাই তারা সর্বনি¤œ ৫ কেজি ও সর্বোচ্চ ২০ কেজি করে লবণ ক্রয় করেন। জেলা ও উপজেলা প্রশাসন এবং পুলিশ বিভাগের কঠোর পদক্ষেপে মঙ্গলবার সকাল থেকে লবণ ক্রেতাদের মাঝে স্বস্থি ফিরেছে।

উল্লেখ্য, ১৮ নভেম্বর সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টায় হবিগঞ্জ শহরের চৌধুরী বাজার এলাকার রহমান এন্টারপ্রাইজ থেকে প্রায় ২০ বস্তা লবণ জব্দ ও ৪জনকে আটক করেছে হবিগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশ। প্রশাসন তাদের বিভিন্ন মেয়াদে জরিমানা ও সাজা দিয়েছে।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আমিরুল ইসলাম মাসুদ বলেন, লবণের কৃত্রিম সংকট তৈরীর চেষ্টা করায় ৪ জনকে আটক ও উল্লেখিত পরিমাণ লবণ জব্দ করা হয়। লবণের মূল্য স্বাভাবিক রয়েছে। হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোঃ কামরুল হাসান গুজবে কান না দিতে সবার প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, লবণের মূল্য স্বাভাবিক রয়েছে। এনিয়ে কাউকে বিভ্রান্ত না হতে বলেছেন।