হলিক্রস কলেজে এই প্রথম ফেল করলো দুইজন

প্রকাশিত: ৫:৩২ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০১৯ | আপডেট: ৫:৩২:অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০১৯
ছবি: সংগৃহীত

শতভাগ পাসের রেকর্ড থাকা হলিক্রস কলেজে এবার দুইজন ছাত্রী ফেল করেছেন। প্রতিষ্ঠানটির এক হাজার ২৭০ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাস করেছেন এক হাজার ২৬৩ জন আর ড্রপ দিয়েছেন বাকি পাঁচজন। পাসের হার ৯৯.৮৪ শতাংশ। তাদের মধ্যে ৭৬৪ জন জিপিএ-৫, ৪২৫ জন জিপিএ, ৫৫ জন জিপিএ মাইনাস ৫৫ এবং ১৯ জন বি গ্রেডে পাস করেছেন।

হলিক্রস কলেজ সূত্র জানায়, চলতি বছরের এইচএসসি পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগে অংশ নেন ৭৭৩ জন, ড্রপ দিয়েছেন ৩ জন। তাদের মধ্যে এ প্লাস পেয়েছেন ৬১৭ জন, এ পেয়েছেন ১৪৭ জন, এ মাইনাস পেয়েছেন ৬ জন। পাসের হার ৯৯.৯৩ শতাংশ, এ প্লাস ৮০.১৩ শতাংশ । মানবিক বিভাগে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন ২৩৭ জন, ড্রপ দিয়েছেন ২ জন, পাস করেছেন ২৩৩ জন, ফেল করেছেন ২ জন। ৫৭ জন এ প্লাস, ১৩২ জন এ গ্রেড, ৩১ জন এ মাইনাস, ১৩ জন বি গ্রেডে পাস করেছেন। পাসের হার ৯৯.১৫ শতাংশ আর এ প্লাস ২৪.৪৬ ভাগ। বাণিজ্য বিভাগে মোট পরীক্ষার্থী ২৬০ জন, পাস ২৬০ জনই। ৯০ জন এ প্লাস, ১৪৬ জন এ গ্রেড, ১৮ জন এ ও ৬ জন বি গ্রেড পেয়েছেন। বাণিজ্য বিভাগে শতভাগ শিক্ষার্থীই পাস করেছেন, আর ৩৪.৬২ শতাংশ এ প্লাস পেয়েছেন।

প্রতিষ্ঠানটি থেকে মানবিক বিভাগ থেকে জিপিএ ফাইভ পাওয়া পারমিতা ভট্রাচার্য্য আইনজীবী হতে চান। তার ইচ্ছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগে ভর্ত্তি হওয়ার। তিনি বলেন, বাবা-মা আর শিক্ষকদের অবদান অনস্বীকার্য। প্রতিদিন তিনি ৭ থেকে ৮ ঘন্টা পড়ালেখা করতেন।

বিজ্ঞান বিভাগ গোল্ডেন জিপিএ-৫ পাওয়া মিথিলা দাস বলেন, ‘আমার ইচ্ছে ইঞ্জিনিয়ার হওয়া। কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সহযোগিতার কারণেই আমার আজকের এই ফল।’

-আমাদের সময়।