হাবিবুল বাশারের জন্মদিনে আইসিসির শুভেচ্ছা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:৪৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০১৮ | আপডেট: ৬:৪৫:অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০১৮

সেঞ্চুরি নয়, যেন হাফ সেঞ্চুরি করার লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামতেন! টেস্ট ম্যাচ মানেই তার ব্যাটে হাফ সেঞ্চুরি। ৫০ টেস্ট খেলে ব্যাট করছেন ৯৯ ইনিংস। রান করেছেন ৩ হাজার ২৬। তিনটি সেঞ্চুরির পাশাপাশি নামের পাশে রয়েছে ২৪ হাফ সেঞ্চুরি। বেশ কয়েকবার সেঞ্চুরির আশা জাগিয়েও ফিফটি করে আউট হওয়ায় পরিচিতি পেয়েছেন ‘মিস্টার ফিফটি’ হিসেবে।

এর চেয়েও বড় পরিচয় তিনি বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট জয়ী অধিনায়ক। তার নাম হাবিবুল বাশার সুমন। আজ ‘মিস্টার ফিফটি’ হিসেবে খ্যাত বাশারের ৪৬তম জন্মদিন। বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) এই নির্বাচকের জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে আইসিসির অফিসিয়াল পেজ থেকে এক পোস্টের মাধ্যমে বাশারকে তার ৪৬তম জন্মদিনের শুভেচ্ছা জনানো হয়েছে।

বাশারের সেঞ্চুরি উদযাপনের একটি ছবি পোস্ট করে আইসিসি লিখেছে, ‘বাংলাদেশের হয়ে যে চারজন ব্যাটসম্যান তিন হাজারের বেশি রান করেছেন, তাদের একজন তিনি। বাংলাদেশ ক্রিকেটের ইতিহাসে অন্যতম সেরা অধিনায়ক, যিনি ২০০৫ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশকে প্রথম টেস্ট জয়ের স্বাদ এনে দিয়েছিলেন। শুভ জন্মদিন হাবিবুল বাশার সুমন।’

১৯৭২ সালের ১৭ আগস্ট কুষ্টিয়ার নয়াকান্দা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন হাবিবুল বাশার। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার অভিষেক ১৯৯৫ সালের এপ্রিলে। সেবার সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে তোলেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। লঙ্কানদের বিপক্ষে নিজের অভিষেক ম্যাচে মাত্র ১৬ রান করে আউট হন তিনি।

হাবিবুল খেলেছেন বাংলাদেশের অভিষেক টেস্টেও। অভিষেক ওয়ানডেতে ব্যর্থ হলেও অভিষেক টেস্টে ঠিক হেসেছে তার ব্যাট। ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশ ও নিজের অভিষেক টেস্টে তার ব্যাট থেকে এসেছে ৭১ রান। ১১২ বলে ১০ চারে ৭১ রানের সেই ইনিংসটি সাজান তিনি। ক্যারিয়ারের প্রথম ছয় টেস্টে পাঁচ হাফ সেঞ্চুরি করার পর সপ্তম টেস্টেই পেয়েছিলেন সেঞ্চুরির দেখা।

২০০৩ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে এক সেঞ্চুরি ও তিন হাফ সেঞ্চুরিতে ৩৭৯ রান করেন বাশার। এটি বাংলাদেশ টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত এক সিরিজে কোনো ব্যাটসম্যানের করা সর্বোচ্চ রান। একসময় পান জাতীয় দলের অধিনায়কত্ব। সেখানেও রেখে গেছেন সাফল্যের ছাপ। তার নেতৃত্বেই প্রথম টেস্ট জয়ের পাশাপাশি প্রথমবার টেস্ট সিরিজেও জয় পায় বাংলাদেশ।

ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ১১১ ম্যাচের মধ্যে ৬৯ ম্যাচে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দিয়েছেন বাশার। এর মধ্যে জয় এসেছে ২৯ ম্যচে। ২০০৬-০৭ সালে বাশারের নেতৃত্বে ১৬ ওয়ানডের মধ্যে ১৪ ম্যাচেই জয় পায় বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কা, ভারত, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দলের বিপক্ষেও বাংলাদেশের প্রথম জয় এসেছিল তার অধিনায়কত্বে।

১১১ ওয়ানডেতে ১০৫ ইনিংস মিলিয়ে হাবিবুল করেছেন দুই হাজার ১৬৮ রান। রঙিন জার্সিতে ১৪ হাফ সেঞ্চুরির দেখা পেলেও এই ফরম্যাটে বাশারের নামের পাশে কোনো সেঞ্চুরি নেই।

জাতীয় দল ছাড়াও জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) খুলনা জেলা ও ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে (ডিপিএল) বাংলাদেশ বিমানের হয়ে খেলছেন ৪৬ বছর বয়সী বাশার।