হারতে ভুলে গেছে ম্যানচেস্টার সিটি!

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:২৪ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১ | আপডেট: ৫:২৪:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১

হারতে যেন ভুলেই গেছে ম্যানচেস্টার সিটি। জিতেই চলেছে একের পর এক ম্যাচ। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ওয়েস্টহামকে হারিয়ে টানা ২০তম জয় তুলে নিল শিরোপা প্রত্যাশীরা। ম্যাচটি ২-১ গোল ব্যবধানে জিতেছে পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা। দলের হয়ে একটি করে গোল করেন রুবেন দিয়াজ এবং জন স্টোনস। ওয়েস্টহামের একমাত্র গোলটি করেন মিচেল অ্যান্টনিও।

অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছে পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটি। একের পর এক জয়ে টেবিলে নিজেদের পয়েন্ট ব্যবধানটা খানিকটা বাড়িয়ে নিয়েছে ক্লাবটি। বর্তমান অবস্থা বিচার করলে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গে পয়েন্ট ব্যবধান ১৩।

শুরু থেকে বল দখলে এগিয়ে থাকলেও পরিষ্কার কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারছিল না সিটি। ৩০তম মিনিটে গোলের উদ্দেশে তাদের প্রথম শটেই মেলে সাফল্য। ডান দিক থেকে কেভিন ডে ব্রুইনের দারুণ ক্রসে ছয় গজ বক্সে হেডে বল জালে পাঠান দিয়াস।

সিটির জার্সিতে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৩২ ম্যাচে পর্তুগিজ এই ডিফেন্ডারের এটিই প্রথম গোল।

৩৯তম মিনিটে ওয়েস্ট হ্যামকে সমতায় ফেরানোর সুবর্ণ সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি অ্যান্টোনিও। সতীর্থের পাস ডি-বক্সে ফাঁকায় পেয়ে তার নেওয়া শট লাগে পোস্টের বাইরের দিকে।

বিরতির আগে ম্যাচে ফেরে সফরকারীরা। ডান দিক থেকে ভ্লাদিমিরের পাসে ছয় গজ বক্সের সামনে জেসে লিনগার্ডের শট জালেই যাচ্ছিল। শেষ মুহূর্তে বলে পা ছোঁয়ান অ্যান্টোনিও। লিগে ছয় ম্যাচ পর ঘরের মাঠে গোল খেল সিটি।

গত অক্টোবরের পর প্রথমবার লিগে শুরুর একাদশে নামা সের্হিও আগুয়েরো প্রথমার্ধে ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে। ৬১তম মিনিটে এই আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকারকে তুলে নিয়ে গাব্রিয়েল জেসুসকে নামান কোচ।

৬৮তম মিনিটে আবার এগিয়ে যায় সিটি। ডি-বক্সে ডান দিক থেকে রিয়াদ মাহরেজের পাসে প্রথম স্পর্শে ডান পায়ের শটে ঠিকানা খুঁজে নেন স্টোনস।

লিগে শেষ আট ম্যাচে ইংলিশ এই ডিফেন্ডারের এটি তৃতীয় গোল। প্রতিযোগিতায় তার প্রথম ১৭০ ম্যাচে গোল ছিল কেবল একটি।

২৬ ম্যাচে ১৯ জয় ও পাঁচ ড্রয়ে ম্যানচেস্টার সিটির পয়েন্ট হলো ৬২। ২৫ ম্যাচে ৪৯ পয়েন্ট করে নিয়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড দুইয়ে, লেস্টার সিটি তিনে আছে। ২৬ ম্যাচে ৪৫ পয়েন্ট নিয়ে চারে ওয়েস্ট হ্যাম।