হিজাব পরে মুসলমানদের সম্মনিত করায় নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানালেন ইমাম

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩:২০ অপরাহ্ণ, মার্চ ২২, ২০১৯ | আপডেট: ৩:২০:অপরাহ্ণ, মার্চ ২২, ২০১৯

ইমাম প্রধানমন্ত্রী জাসিদা আরডার্নের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, আপনার যোগ্য নেতৃত্বকে ধন্যবাদ। হামলা পরবর্তী আপনার নেতৃত্ব বিশ্বের সকল নেতাদের জন্য শিক্ষণীয় হয়ে থাকবে।

আমাদের সবাইকে পরিবারের মতো একত্রিত করে রাখার জন্য কৃতজ্ঞতা। হিজাব পরে আমাদের সম্মনিত করায় আমরা কৃতজ্ঞ।

আমাদের জন্য আপনার কথা ও কান্না দিয়ে আমাদের সমবেদনা জানানোর জন্য আপনার প্রতি আমাদের ভালবাসা। আপনাদের হাকা নৃত্যের জন্য ধন্যবাদ। আপনাদের ফুলের জন্য কৃতজ্ঞতা।

আপনাদের ভালোবাসা ও সহানুভূতির জন্য কৃতজ্ঞতা। ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি পার্কে উপস্থিত জনগনের সামনে এভাবেই বলছিলেন ইমাম ফাওদা। যেখানে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিদা আরডার্নসহ দেশটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজিল্যান্ড কখনো ভাঙ্গবে না। আমাদের হৃদয় ভেঙ্গে গেছে কিন্তু কিন্তু আমরা ভেঙ্গে পড়িনি। সাত দিন আগে ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদে হামলা নিয়ে এমনটাই বলছিলেন মসজিদটির ইমাম জামাল ফাওদা।

ক্রাইস্টচার্চে হামলায় অর্ধশত মুসলি­ নিহত হওয়ার এক সপ্তাহ পার হয়ে গেছে। আজ শুক্রবার আল নুর মসজিদটি মেরামতের পর প্রথম নামাজ আদায় হয়েছে। এতে হাজার হাজার মুসলি­ অংশ নিয়েছেন।

গত শুক্রবার আমি এ মসজিদটিতে দাঁড়িয়েছিলাম। তখন এক সন্ত্রাসীর চোখেমুখে ঘৃণা ও ক্ষোভ দেখেছি। এতে অর্ধশত মুসলি­ নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৪২ জন।

আজ একই স্থানে দাঁড়িয়ে যখন চারপাশে তাকিয়েছি, তখন নিউজিল্যান্ড ও বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা হাজার হাজার মানুষের চোখে ভালোবাসা ও সহানুভূতি দেখতে পেয়েছি। এতে আরও লাখ লাখ মানুষের হৃদয় ভরে গেছে, যারা আমাদের সঙ্গে এখানে শারীরিকভাবে নেই, কিন্তু আত্মীকভাবে আছেন।

সন্ত্রাসী আমাদের দেশকে শয়তানি মতাদর্শ দিয়ে ছিন্নভিন্ন করতে চেয়েছে, যা বিশ্ববাসীকে হতাশ করে দিয়েছে। কিন্তু এসব কিছু সত্তে¡ও আমরা দেখিয়ে দিয়েছি যে নিউজিল্যান্ড হচ্ছে একেবারে অবিচ্ছেদ্য।

বিশ্ব ভালোবাসা ও ঐক্যের এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হিসেবে দেখতে পারে। আমাদের হৃদয় ভেঙে গেছে। কিন্তু আমরা ভেঙে পড়িনি। আমরা বেঁচে আছি। আমরা ঐক্যবদ্ধ। আমরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ যে কাউকে আমাদের থেকে বিচ্ছিন্ন হতে দেব না।

শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদের শয়তানি মতাদর্শ এই প্রথম আমাদের আঘাত হানেনি। এ ঘটনা আমাদের কঠিন আঘাত দিয়েছে। এতগুলো লোককে হত্যা সাধারণ কিছু নয়। কিন্তু নিউজিল্যান্ডের সংহতি অসাধারণ।

হতাহতদের পরিবারগুলোকে আপনাদের ভালোবাসা, তাদের মৃত্যুকে বিফলে যেতে দেয়নি। তাদের রক্ত আশার বীজে পানি ঢেলে দিয়েছে। তাদের মাধ্যমে বিশ্ববাসী ইসলামের সৌন্দর্য দেখতে পেয়েছেন। আর আমাদের ঐক্যের সৌন্দর্যও।হিজাব পরায় নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানালেন ইমাম