হ্যান্ডকাকে নোবেল পুরস্কার দিয়ে ইসলামের শত্রুদের উৎসাহী করা হয়েছে: এরদোগান

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: 11:02 PM, December 11, 2019 | আপডেট: 11:02:PM, December 11, 2019

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান বলেছেন, বিতর্কিত সাহিত্যিক পিটার হ্যান্ডকাকে নোবেল পুরস্কার দেয়ার মাধ্যমে ইসলাম ও মানবতার শত্রুদের উৎসাহী করা হয়েছে।

তিনি বলেন, হাজার হাজার মুসলমানের রক্ত ঝরানো ও প্রাণহানি ঘটিয়েছেন এমন খুনির পক্ষে সাফাই গাওয়া এবং প্রশংসাকারীকে এই পুরস্কার দেয়া লজ্জা ও অপমানের।

রাজধানী আংকারায় মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট কমপ্লেক্সে এক অনুষ্ঠানে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট বলেন, যারা তুরস্ককে গণতন্ত্র ও আইন নিয়ে জ্ঞান দেয়ার চেষ্টা করেন, তারাই একনায়ক ও লাখ লাখ মানুষকে হত্যায় দায়ী খুনিদের জন্য লাল গালিচা সংবর্ধনার আয়োজন করেন।

চলতি বছরে সাহিত্যে নোবেল দেয়া হয়েছে অস্ট্রেলীয় লেখক পিটার হ্যান্ডকাকে। ১৯৯৫ সালে বসনিয়ায় মুসলিম গণহত্যাকে অস্বীকারকারী হিসেবে অভিযুক্ত এই লেখকের।

ওই গণহত্যার ঘটনায় দায়ী সাবেক সার্বীয় নেতা স্লোবোদান মিলোসেভিসের একজন বড় গুণকীর্তনকারী হ্যান্ডকা। ২০০৬ সালে মৃত্যুর আগে দ্য হেগ শহরে আন্তর্জাতিক আদালতে গণহত্যা ও যুদ্ধাপরাধের অভিযোগের মুখোমুখী হতে হয়েছিল ওই সার্বীয় নেতাকে।

১৯৯৮-১৯৯৯ সালের কসোভো যুদ্ধের সময় হ্যান্ডকা লিখেছেন, যদি আপনারা সার্বদের সমর্থন করেন, তবে রুখে দাঁড়ান।

সারাজেভোতে বসনীয় মুসলমানরা নিজেদেরই হত্যা করেছেন বলে তিনি দাবি করেন। অস্ট্রেলীয় এই লেখক বলেন, সেবরেনিৎসায় সার্বরা কোনো গণহত্যা চালিয়েছে, তা কোনোদিন তিনি বিশ্বাস করেন না।

কারাগারে মিলোসেভিসকে দেখতে গিয়েছিলেন এবং তার পক্ষে সাক্ষ্য দেয়ারও চেষ্টা করেছিলেন পিটার হ্যান্ডকা।