হয়ে গেলো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ড্র, দেখে নিন কে কার প্রতিপক্ষ

প্রকাশিত: ১২:৩৬ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০১৮ | আপডেট: ১২:৩৬:অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০১৮

আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা হয়ে গেল উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ। আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর শুরু হচ্ছে নতুন মৌসুমের খেলা। স্বাভাবিকভাবেই দর্শকদের নজর থাকবে রিয়াল, বার্সেলোনা, ম্যান ইউয়ের মতো বড় ক্লাবগুলোর দিকে। তিন বারের চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ অপেক্ষাকৃত সহজ গ্রুপেই পড়েছে। গ্রুপ ‘জি’ তে তাদের সঙ্গে রয়েছে ইতালির ক্লাব রোমা, রাশিয়ার ক্লাব সিএসকেএ মস্কো এবং চেক প্রজাতন্ত্রের চ্যাম্পিয়ন ক্লাব এফসি ভিক্টোরিয়ান প্লাজেন।

গ্রুপ পর্বে অপেক্ষাকৃত কঠিন প্রতিপক্ষদের মুখোমুখি হতে হবে গতবারের লা লিগা চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনাকে। টটেনহ্যাম হটস্পার, পিএসভি এন্ডোভেন এবং ইন্টার মিলানের সঙ্গে তারা রয়েছে গ্রুপ ‘বি’তে। সাতবছর পর চলতি মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার ছাড়পত্র আদায় করেছে তিনবারের চ্যাম্পিয়ন ইন্টার। প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন ম্যাঞ্চেষ্টার সিটি’র সঙ্গে গ্রুপ ‘এফ’এ রয়েছে ইউক্রেনের শাখতার ডোনেৎস্ক, ফরাসি ক্লাব লিয়ঁ এবং জার্মানির ক্লাব হফেনহেইম।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের লটারি অনুযায়ী বেশ আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে গ্রুপ ‘এইচ’ এর লড়াই। ফুটবলমহলের ধারণা ঠিক তেমনটাই। সিরি আ চ্যাম্পিয়ন জুভেন্তাসের সঙ্গে ওই গ্রুপে রয়েছে শক্তিশালী ম্যাঞ্চেষ্টার ইউনাইটেড। ম্যান ইউতে স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের হাত ধরেই বিশ্ব ফুটবলে পরিচিতি পেয়েছিলেন সিআরসেভেন। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের লকাররুমে একটি চ্যম্পিয়ন্স লিগও এসেছে রোনালদোর হাত ধরে।

এরপর ২০০৯ রিয়াল মাদ্রিদে পাড়ি দেন সিআর সেভেন। স্প্যানিশ ক্লাবকে চারবার ইউরোপ সেরা করে নতুন ক্লাব জুভেন্তাসে পা দিয়েছেন পর্তুগিজ ফুটবলের পোস্টার বয়। তাই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ড্র রোনালদোকে আরও একবার সুযোগ করে দিল তার পুরনো ক্লাবে ফেরার। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে আরও একবার বল পায়ে মাঠে নামবেন রোনালদো। পুরনো ক্লাবের বিপক্ষে রোনালদোর লড়াই দেখতে মুখিয়ে তার অসংখ্য অনুরাগী।

রোনালদোর জুভেন্তাস ও প্রিমিয়র লিগের দানব ম্যান ইউ ছাড়াও এই গ্রুপে রয়েছে স্প্যানিশ জায়ান্ট ভ্যালেন্সিয়া এবং এই মুহূর্তে সুইজারল্যান্ডের এক নম্বর ক্লাব ইয়ং বয়েজ। আগামী বছর ১ জুন গতবারের রানার্স অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত হবে ২০১৮-১৯ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল।

একনজরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ বিন্যাস

গ্রুপ-এ: অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ, বরুশিয়া ডর্টমুন্ড, মোনাকো, ব্রুগি
গ্রুপ-বি: বার্সেলোনা, টটেনহ্যাম, পিএসভি, ইন্টার মিলান
গ্রুপ-সি: পিএসজি, নাপোলি, লিভারপুল, ক্রভনা ভেজদা
গ্রুপ-ডি: লোকোমোটিভ মস্কোভা, পোর্তো, শালকে, গ্যালাতাসারে
গ্রুপ-ই: বায়ার্ন মিউনিখ, বেনফিকা, আয়াক্স, এইকে এথেন্স
গ্রুপ-এফ: ম্যান সিটি, শাখতার ডোনেৎক্স, লিয়ঁ, হফেনহেইম
গ্রুপ-জি: রিয়াল মাদ্রিদ, রোমা, সিএসকে মস্কো, ভিক্টোরিনো প্লাজেন
গ্রুপ-এইচ: জুভেন্তাস, ম্যান ইউ, ভ্যালেন্সিয়া, ইয়ং বয়েজ