ইসরাইলে ফাইজারের টিকায় ১৩ জনের মুখ বিকৃত

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭:২০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৮, ২০২১ | আপডেট: ৭:২১:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৮, ২০২১

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, ভারতের মতো ইসরায়েলেও শুরু হয়েছে করোনার টিকাকরণ। ইতিমধ্যে সেদেশের অনেকেই ফাইজার বায়োনটেকের (Pfizer-Biontech) টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন। কিন্তু এর মধ্যেই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে অনেকের মধ্যে।

সেদেশের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, টিকার প্রথম ডোজ নেওয়ার পর পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়ার কারণে অন্তত ১৩ জনের মুখমণ্ডল বিকৃত হয়েছে। টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় ২৮ ঘণ্টা তাদের মুখ বাঁকা ছিল।

খোদ সেদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পক্ষ থেকেই একথা জানানো হয়েছে। শুধু তাই নয়, এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে, এমন ইঙ্গিতও দেওয়া হয়েছে।

ভুক্তভোগীদের মধ্যে একজন জানান, ‘অন্তত ২৮ ঘণ্টা আমার মুখ বিকৃত ছিল। তবে ধীরে ধীরে সেরে গেছে।’

কেন মুখ বাঁকা হয়ে গেল বিষয়টি পরিষ্কার নয় ইসরাইলি চিকিৎসকদের কাছে। পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে কোন মন্তব্য করেনি ফাইজার-বায়োএনটেকের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

চিকিৎসকরা জানান, যারা প্রথম ধাপে টিকা নিয়েছিল তাদের মুখে কিছুটা পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়। পরে তাদের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়।’

যাদের সমস্যা দেখা দিয়েছে তাদের টিকার দ্বিতীয় ডোজ দিতে বিশেষজ্ঞরা শঙ্কিত। তবে ওইসব ব্যক্তিদের মুখ স্বাভাবিক হয়ে যাওয়ায় করোনার দ্বিতীয় ডোজ দিতে চাচ্ছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

সম্প্রতি নরওয়েতেও ফাইরাজের টিকা নেওয়ার পর ২৩ জন মারা যান। নরওয়ের কর্মকর্তারা জানান, মারা যাওয়াদের সবার বয়স ৮০ বছরের বেশি। এছাড়াও অনেকের শরীরে নানা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। একই পরিস্থিতি ভারতের দিল্লিতেও। সেখানকার চিকিৎসকদের তথ্য মতে, টিকা নেয়া অর্ধশত মানুষের শরীরের সমস্যা পাওয়া গেছে।

তবে টিকা নিয়ে এতো অভিযোগের পরও এখন মুখ খোলেনি ফাইজার-বায়োএনটেক।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন।