১ থেকে ১৪তম নিবন্ধনধারীদের নিয়োগ আগামী সপ্তাহে

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১:০৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৪, ২০১৮ | আপডেট: ১:১৫:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৪, ২০১৮
ফাইল ছবি

১ থেকে ১৪তম নিবন্ধনধারীদের সম্মিলিত মেধাতালিকা প্রকাশ করেছেন বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন কর্তৃপক্ষ এনটিআরসিএ।

গতকাল সোমবার ওই মেধাতালিকা প্রকাশ করে কর্তৃপক্ষ। এর আগে গত ২৭ নভেম্বর ১৪তম শিক্ষক নিবন্ধনের ফল প্রকাশ করেছিল এনটিআরসিএ। এরপরই এই সম্মিলিত মেধাতালিকা প্রকাশ হলো। সম্মানিত মেধাতালিকা দেখা যাবে http://ngi.teletalk.com.bd/ntrca/merit/ ওয়েবসাইটে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বেসরকরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সারাদেশে প্রায় ৪০ হাজার শিক্ষক সঙ্কট রয়েছে। মামলাসহ নানা জটিলতায় গত ২ বছর শিক্ষক নিয়োগ দেয়া সম্ভব হয়নি। এ কারণে দেশের বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান কার্যক্রম চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে।

এনটিআরসিএ থেকে জানা গেছে, এবার বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (স্কুল অ্যান্ড কলেজ, কলেজ, মাদরাসা) মহানগর অথবা জেলা সদরের পৌর এলাকায় অবস্থিত প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে অনুমোদিত শিক্ষক পদসংখ্যার অন্তত ৩০ শতাংশ পদে নারী কোটায় শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে।

এ ছাড়াও শরীরচর্চা শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে নারী শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। সম্প্রতি এনটিআরসিএর সুপারিশের ভিত্তিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে ৩৫ বছর বয়সসীমা নির্ধারিত হয়েছে। এর বেশি হলে নিবন্ধিত ব্যক্তি নিয়োগের জন্য আবেদন করতে পারবেন না। জেলাভিত্তিক নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিল করে জাতীয়ভাবে নিয়োগ কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

জানা গেছে, সারাদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে পাঠানো তালিকা চূড়ান্ত করেছে এনটিআরসি। এতে বিভিন্ন বিষয়ের প্রায় ৪০ হাজার নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রথম থেকে ১৪তম নিবন্ধিত প্রার্থীদের কাছে আবেদন চেয়ে আগামী ১৫ ডিসেম্বর গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। এক মাসব্যাপী আবেদন কার্যক্রম চলবে। মেধাক্রম অনুযায়ী যোগ্যদের শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দিতে স্ব স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সুপারিশ পাঠাবে এনটিআরসিএ। মার্চের মধ্যে নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে এনটিআরসিএ চেয়ারম্যান অতিরিক্ত সচিব এ এম আশফাক হুসাইন বলেন, ‘বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে যেসব জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে তা নিরসন করতে দিনরাত কাজ করা হচ্ছে। আগামী সপ্তাহেই নতুন নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করতে পারব বলে আশা রাখি।’

Add Image